কন্যা শিশুর বিকাশে পরিবার থেকেই সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে : মহিলা ও শিশু বিষয়ক সচিব

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:২১

'কন্যা শিশুর উন্নয়ন ও বিকাশের জন্য পরিবার থেকেই সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। কন্যা শিশুরা পরিবারে মা-বাবার সমর্থন পেলে তাদের শিক্ষা ও বিকাশের ক্ষেত্রে কোন বাধা থাকতে পারে না' বলে জানিয়েছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম।

সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম বলেন, পরিবার শিশুর জন্য সবচেয়ে সুরক্ষিত ও অধিকার নিশ্চিত হওয়ার জায়গা। অথচ কন্যা শিশুর প্রতি বৈষম্য শুরু হয় পরিবার থেকে। পুরুষতান্ত্রিক মনমানসিকতা ত্যাগ করার মাধ্যমে কন্যা শিশুর প্রতি সকল বৈষম্য দূর করা সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, প্রতিটি কন্যা শিশুরই রয়েছে অমিত সম্ভাবনা। তারা সমান সুযোগ পেলে অধিকতর দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে পারে। আজ বাংলাদেশে মাননীয়  প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকার নারী। এছাড়া রাষ্ট্রের উচ্চ পদে নারীরা দায়িত্ব পালন করছেন।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম আজ ঢাকায় ইস্কাটনে  মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর আয়োজিত জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রাম চন্দ্র দাসের সভাপতিত্ব অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান চেমন আরা তৈয়ব, জয়িতা ফাউন্ডেশনের এমডি আফরোজা খান, জাতীয় মহিলা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক সাকিউন নাহার বেগম, অতিরিক্ত সচিব ড. মহিউদ্দীন আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ মুহিবুজ্জামান, কন্যা শিশু এ্যাডভোকেসি ফোরামের সম্পাদক নাছিমা আক্তার জলি এবং মন্ত্রণালয় ও দপ্তর সংস্থার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ।

 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক ডা. শেখ মুসলিমা মুন। সভাপতির বক্তব্যে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রাম চন্দ্র দাস বলেন, 'মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নশীল বাংলাদেশে নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি বৈষম্য করার কোন সুযোগ নেই। নারীর ক্ষমতায়নের মাধ্যমেই প্রতিষ্ঠিত হবে সমতার বাংলাদেশ'।

এ বছর “আমরা কন্যা শিশু- প্রযুক্তিতে সমৃদ্ধ  হবো, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়বো" প্রতিপাদ্য সামনে রেখে উদযাপিত হচ্ছে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস।

 

আলোচনা পর্ব শেষে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষে  রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিশুদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
 

এবিএন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ
ksrm