শীঘ্রই চাকরি হারাবেন মাইক্রোসফটের ১১ হাজার কর্মী!

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬:১৯

গুগল, টুইটার, অ্যামাজন, ফেসবুকের পর এবার কর্মী ছাঁটাইয়ের আভাস মিলছে মার্কিন বহুজাতিক প্রযুক্তি সংস্থা মাইক্রোসফটে। নতুন বছরের শুরুতেই প্রায় ১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনা করছে কম্পিউটার সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। খবর রয়টার্সের।

ছাঁটাইয়ের বিষয়ে যদিও গণমাধ্যমে এখনও মুখ খোলেনি ধনকুবের বিল গেটসের সংস্থা; তবে সম্প্রতি রয়টার্স ও ব্লুমবার্গে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। 

সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, সারাবিশ্বে মাইক্রোসফটের যত কর্মী রয়েছেন, তাদের অন্তত ৫ শতাংশের চাকরি হারাতে চলেছে। সূত্র জানায়, এই ছাঁটাই মূলত হবে সংস্থাটির ইঞ্জিনিয়ারিং এবং মানবসম্পদ বিভাগে।

এর আগে, ২০২২ সালেও হাজারখানেক কর্মী ছাঁটাই করেছিল মাইক্রোসফট। সংস্থার ২ লাখ ২১ হাজার কর্মীর মধ্যে সেবার চাকরি হারিয়েছিলেন ১ শতাংশেরও কম লোক। তবে এবারের মতো এত বড় আকারে আগে কখনো কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটেনি মাইক্রোসফট। ব্রিটেনের স্কাই নিউজ জানিয়েছে, ৫ শতাংশ কর্মী ছাঁটাইয়ের লক্ষ্য নিয়েই এগোচ্ছে মার্কিন এই প্রযুক্তি সংস্থা।

বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনায় সম্প্রতি বিশ্বের বড় বড় বহুজাতিক সংস্থাগুলোতে চলছে কর্মী ছাঁটাইয়ের হিড়িক। কিছুদিন আগেই কর্মী সংকোচনের কথা ঘোষণা করেছিলেন অ্যামাজনের সিইও অ্যান্ডি জেসি। গেল বছর প্রায় ১৮ হাজার কর্মী ছাঁটাই করেছে অ্যামাজন। ফেসবুকের নিয়ন্ত্রক সংস্থা মেটা ছাঁটাই করেছে ১১ হাজার কর্মী। আর টুইটারের মালিকানা হাতে পেয়েই ধনকুবের ইলন মাস্ক সংস্থাটিতে বড় আকারে কর্মী ছাঁটাই চালিয়েছেন, সেইসঙ্গে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কর্মীকে পদত্যাগেও করতে বাধ্য করেছিলেন তিনি।

বিশেষজ্ঞদের অনুমান, বৈশ্বিক রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা এবং অর্থনৈতিক মন্দা পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ২০২৩ সালে বড় বড় সংস্থাগুলো আবার বড় আকারে কর্মীকে ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটতে পারে।
 

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ