কর্মীদের চাকরি ছাড়ার হিড়িকে সংকটের মুখে টুইটার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ নভেম্বর ২০২২, ১২:২৭

বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার কর্মীদের চাকরি ছাড়ার হিড়িকে সংকটের মুখে পড়েছে। ২১ নভেম্বর পর্যন্ত বন্ধ টুইটারের সব অফিস।

বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক মালিকানা নেয়ার পর থেকেই সংকট বাড়ছে টুইটারে। প্রতিষ্ঠানটি প্রতিদিন ৪০ লাখ ডলার লোকসান গুনছে, এমন বার্তা দিয়ে কর্মীদের দীর্ঘ কর্মঘণ্টা কাজ করার শর্ত দেন মাস্ক। 

টুইটারের মালিকানা নেওয়ার পর থেকে ইলন মাস্ক একের পর এক নতুন নিয়ম চালু করে চলেছেন। সর্বশেষ তিনি কর্মীদের দীর্ঘ সময় কাজ করতে আর না হলে প্রতিষ্ঠান ছেড়ে দিতে বলেছিলেন। এমনকি নতুন নিয়ম মানতে আল্টিমেটামও বেঁধে দিয়েছিলেন তিনি।

এরপরই শুরু হয় চাকরি ছাড়ার হিড়িক। এরই মধ্যে দেড় হাজার কর্মী টুইটার ছেড়েছে বলে জানা গেছে। 

এতে প্রতিষ্ঠানটি বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয়েছে যে টুইটার বাধ্য হয়ে সাময়িক সময়ের জন্য তাদের অফিস বন্ধ করে দিয়েছে।

টুইটার থেকে চাকরি ছাড়ার তালিকায় আছেন অসংখ্য ইঞ্জিনিয়ার। যারা টুইটারের বাগ ঠিক করা এবং সেবা চালু রাখার কাজটি করে থাকেন। তারা চাকরি ছাড়ার পরই টুইটারের সেবা হুমকির মুখে পড়ে। কর্মীরা গণহারে পদত্যাগ শুরু করলে চিন্তায় পড়ে যান ম্যানেজাররা।

এ ঘটনার পর বেশ কিছু ব্যবহারকারী টুইটার ব্যবহারে সমস্যার কথা জানান। সাইট ডাউনের কথাও বলছেন অনেকে। 

আগামী কয়েক দিনের মধ্যে টুইটারে ধস নামবে। এমন পরিস্থিতিতে ইলন মাস্ক কিছু কর্মীকে থেকে যাওয়ার জন্যও আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু তাদের মধ্যে অনেকেই চাকরি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন।

ইলন মাস্ক এরই মধ্যে সফটওয়ার কোড লিখতে পারে এমন কর্মীদের তলব করেছেন। 

প্রসঙ্গত, বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক ৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে টুইটার কিনে নেওয়ার পর কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব নেন। এরপর ছাঁটাইসহ বিভিন্ন ইস্যুতে কোম্পানিটিতে চরম অস্থিরতা চলছে। অর্ধেক কর্মী ছাটাইয়ের পদক্ষেপ নেন মাস্ক। 

এবিএন/এসএ/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ