বিশ্ব ব্যাংকের ‘গভটেক লিডারস’ তালিকায় বাংলাদেশ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ নভেম্বর ২০২২, ০৪:০৮

ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সরকারের বিভিন্ন সেবা প্রদান ও সেবা গ্রহণে নাগরিকদের সম্পৃক্ত করার ইকো-সিস্টেম তৈরিতে নানা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে বিশ্ব ব্যাংকের ‘গভটেক লিডারস’ তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশ। 

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) রাতে এ তথ্য জানিয়েছেন এসপায়ার টু ইনোভেটের (এটুআই) কমিউনিকেশনস অ্যান্ড আউটরিচ কনসালট্যান্ট আদনান ফয়সাল।

তিনি জানান, বিশ্ব ব্যাংকের জিটিএমআই-২০২২ এর তথ্য অনুসারে, মোট ০.৮৪ স্কোর (১.০০ এর মধ্যে) নিয়ে ক্যাটাগরি এ : ভেরি হাই গভর্নমেন্ট ম্যাচুরিটিতে স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশ। এই গ্রুপে থাকা প্রতিটি দেশকে গভটেক লিডারস হিসেবে বিবেচনা করে বিশ্ব ব্যাংক। নতুন স্কোরের ভিত্তিতে বিশ্বের ১৯৮টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ২৯তম অবস্থানে রয়েছে। জিটিএমআই-২০২০’তে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ০.৭২ (১.০০ এর মধ্যে)। আর অবস্থান ছিল ক্যাটাগরি বির : হাই গভটেক ম্যাচুরিটি গ্রুপে। 

জিটিএমআই-২০২২-এ সরকারি খাতের বিভিন্ন সেবা প্রদানের ডিজিটাল রূপান্তরের চারটি প্রধান দিককে মূল্যায়ন করা হয়েছে। এগুলো হলো—কোর গভর্নমেন্ট সিস্টেমস, পাবলিক সার্ভিস ডেলিভারি, সিটিজেন এনগেজমেন্ট এবং গভটেক এনাবলার্স। বিশ্ব ব্যাংকের ফ্ল্যাগশিপ এই প্রতিবেদনে বিশ্ব অর্থনীতির ১৯৮টি দেশের গভটেক ম্যাচ্যুরিটির একটি চিত্র উপস্থাপন করা হয়েছে। জিটিএমআই-২০২২-এ গভটেকের নতুন নতুন প্রবণতা, অনুশীলন ও সেগুলো বাস্তবায়নে গুরুত্ব প্রদান করেছে। 

এটুআইয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিশ্ব ব্যাংকের জিটিএমআই-২০২২ রিপোর্টে বাংলাদেশের অবস্থান সঠিকভাবে উপস্থাপনের লক্ষ্যে একনিষ্ঠভাবে কাজ করা হচ্ছে। জিটিএমআই-২০২২ রিপোর্টিংয়ের অংশ হিসেবে সরকারের সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তর ও সংস্থার কাছ থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ ও সার্বিক সমন্বয়ের জন্য একাধিক পরামর্শমূলক কর্মশালার আয়োজন করে এটুআই। পরবর্তীতে সরকারের বিভিন্ন দপ্তর থেকে প্রাপ্ত তথ্য সমন্বিত করে বিশ্ব ব্যাংকের কাছে প্রেরণ করা হয়।

এবিএন/আব্দুর রাজ্জাক/জসিম/এআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ