চালু হচ্ছে ইন্টারনেটের ‘এক দেশ এক রেট’ সেবা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ জুন ২০২১, ০১:৩৪

সারাদেশে একই দরে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা চালুর উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। আগামীকাল (৬ জুন) থেকে এই উদ্যোগ চালু করতে চায় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। আগামীকাল বিকেলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ‘এক দেশ এক রেট’ সেবার উদ্বোধন করবেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। ১০ এমবিপিএস ইন্টারনেটের জন্য গ্রাহককে গুণতে হবে ৫শ’ টাকা। আর ১৫ এমবিপিএসের জন্য দিতে হবে ৮শ’ টাকা পর্যন্ত।

বিটিআরসি জানিয়েছে, সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী, গ্রাম শহর হবে। এর মানে গ্রামগুলো ডিজিটাল হবে। অর্থাৎ, শহরের সুযোগ সুবিধা গ্রামেও থাকবে। যে ইন্টারনেট স্পিড শহরে হবে তা গ্রামেও করতে হবে। সেবার খরচে কোন বৈষম্য থাকবে না। সারা দেশে একই রেটে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা পাওয়া যাবে। রাজধানীর ব্রডব্যান্ড গ্রাহকরা যে দরে ইন্টারনেট সেবা পেয়ে থাকেন, দেশের যে কোন প্রান্তেও একই দরে অপটিক্যাল ফাইবার নির্ভর ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা পাবেন সেখানকার গ্রাহকরাও। সারাদেশে একই রেটে ইন্টারনেট সেবা দেয়ার জন্য এরই মধ্যে নেশন ওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন্স ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক- এনটিটিএন অপারেটর, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার সহ সংশ্লিষ্ট সকল অপারেটরদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। তবে, ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী সংগঠন, আইএসপি এসোসিয়েশনের সভাপতি, এম এ হাকিম যমুনা টেলিভিশনকে জানান, সারাদেশে এক রেট বাস্তবায়ন করতে হলে সার্ভিস প্রোভাইডারদের আরো কম খরচে ব্যান্ডউইথ বহনের সুযোগ দিতে হবে। ঢাকা থেকে তৃণমূল পর্যন্ত উচ্চমূল্যে ব্যান্ডউইথ বহন করে এই সেবা চালু রাখা যাবেনা। আমরা আশা করছি, সরকার ট্রান্সমিশন খরচ কমিয়ে আনার বিষয়ে পদক্ষেপ নেবেন।

বিটিআরসির একটি সূত্র জানিয়েছে, ট্রান্সমিশন খরচ ৩০ শতাংশ কমানোর জন্য এনটিটিএন অপারেটরদের সাথে আলোচনা চলছে।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ