ইতিহাস গড়ার পথে ইংল্যান্ড

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০২২, ১০:৫৭ | আপডেট : ০৫ জুলাই ২০২২, ১০:৫৯

টেস্টে কোনো দলের তৃতীয় ইনিংসে করা রানের পাহাড় ডিঙ্গানো যেন মামুলি বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে ইংল্যান্ডের কাছে। যেকোনো লক্ষ্যই চতুর্থ ইনিংসে হেসেখেলেই পার করে দিচ্ছে রুট বেয়ারস্টোরা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টানা তিন টেস্টে সেই নজির ইতোমধ্যেই দেখিয়েছে ইংলিশরা। সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছে তারা ভারতের বিপক্ষে সিরিজের পঞ্চম টেস্টেও।

এজবাস্টনে সিরিজের পঞ্চম টেস্টের নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ইতিহাস গড়ার পথে হাঁটছে ইংল্যান্ড। ভারতের দেয়া ৩৭৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে চতুর্থ দিন শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৫৯ রানের পুঁজি পেয়েছে স্বাগতিকরা।

জয়ের জন্য পঞ্চম দিনে বেন স্টোকসদের প্রয়োজন আর মাত্র ১১৯ রান। হাতে রয়েছে আরও ৭টি উইকেট। পঞ্চম দিন এই ১১৯ রান করে জয় বাগিয়ে নিলেই ইংল্যান্ড ভাঙবে ১২০ বছরের রেকর্ড।

বার্মিংহাম, এজবাস্টনে এটিই হবে ১২০ বছরের ভেতর ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ রান। সেই সঙ্গে রয়েছে প্রথম দল হিসেবে এই ভেন্যুতে ৩০০ ছাড়ানো সংগ্রহের রেকর্ডের হাতছানি।

চতুর্থ দিন শেষে ১১২ বলে ৭৬ রান করে অপরাজিত রয়েছে জো রুট। তাকে উইকেটের অপরপ্রান্ত থেকে সঙ্গ দিয়ে দিন শেষ করেন জনি বেয়ারস্টো। তার সংগ্রহ ৮৭ বলে ৭২ রান।

তিন উইকেটে ১২৫ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে দিনের প্রথম সেশনেই চার উইকেট হারায় সফরকারীরা।

ইংল্যান্ডের হয়ে দিনের শুরুটা হয় স্টুয়ার্ট ব্রডের হাত ধরে। দিনের ১৩তম ওভারেই অ্যালেক্স লিসের তালুবন্দি করে সাজঘরে ফেরত পাঠান প্রতিরোধ গড়ে তোলা চেতেস্বর পুজারাকে।

এরপর একে একে মাঠ ছাড়েন শ্রেয়াস আইয়ার (১৯), ঋষভ পন্ত (৫৭), শার্দুল ঠাকুর (৪) ও মোহাম্মদ সামি (১৩)। এরপর দ্বিতীয় সেশনে আর বেশি সময় টিকতে পারেননি ভারতের ব্যাটাররা। ৮২ ওভারের ভেতরই ২৪৫ রানে তাদের আটকে দেন ইংলিশ বোলাররা। আর ইংল্যান্ডের সামনে টার্গেট দাঁড়ায় ৩৭৮ রানের।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে অ্যালেক্স লিস ও জ্যাক ক্রলির ওয়ানডে স্টাইলের ব্যাটিংয়ে উদ্বোধনী জুটিতেই শতরান আসে ইংল্যান্ডের। দলীয় ১০৭ রানে ক্রলিকে সাজঘরের পথ দেখিয়ে দিয়ে ব্রেক থ্রু এনে দেন ভারত দলপতি জশপ্রিত বুমরাহ। স্টাম্প হারিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৭৬ বলে ৪৬ রান।

এক ওভার বাদেই বুমরাহের দ্বিতীয় শিকার বনে রানের খাতা খোলার আগেই মাঠ ছাড়েন ওলি পোপ। স্কোরবোর্ডে ২ রান যোগ করেই রান আউটের শিকার হয়ে ৬৫ বলে ৫৬ রানের ইনিংস খেলে মাঠ ছাড়েন লিস। যার ফলে বিনা উইকেটে ১০৭ রান করা ইংল্যান্ড চোখের পলকে ১০৯ রানেই হারিয়ে বসে তিন উইকেট।

তবে দৃশ্যপট পুরোই ঘুরে যায় জনি বেয়ারস্টো আর জো রুটের কল্যাণে। ভারতের বোলারদের চোখ রাঙ্গানি তোয়াক্কা না করে দুইজনে মিলে দিনের শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ১৫০ রানের জুটি গড়ে।

শুরু থেকেই রুট সাবলীল ব্যাটিং করলেও উইকেটে সময় নিয়ে থিতু হয়েছেন বেয়ারস্টো। দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার পথে ৭১ বলে টেস্ট ক্যারিয়ারের ৫৫তম অর্ধশতক তুলে নেন রুট।

সঙ্গী বেয়ারস্টোও থেমে ছিলেন না। তিনিও তুলে নেন দুর্দান্ত এক অর্ধশতক। ডানহাতি এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার ৭৫ বল খেলে আট চারে তুলে নেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৪তম অর্ধশতক।

এই দুই ব্যাটারের কল্যাণে দিনশেষে তিন উইকেট হারিয়ে ২৫৯ রান তোলে ইংল্যান্ড। জয়ের জন্য একদিকে শেষ দিনের তিন সেশনে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ১১৯ রান। হাতে রয়েছে ৭ উইকেট। সেই সঙ্গে রয়েছে ইতিহাস গড়ার হাতছানি।

এবিএন/এসএ/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ