সরকার দেশে আরেকটি দাঙ্গা করতে চায়: ইসলামী আন্দোলন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৫৪

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম নিয়ে বক্তব্য দেওয়ায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসানকে মন্ত্রীসভা থেকে অপসারণ এবং তার শাস্তির দাবি করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) বিকেল বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে আয়োজিত এক সমাবেশ থেকে এসব দাবি তোলে দলটি। কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতেদের বিচার এবং দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতির নিয়ন্ত্রণ চেয়ে এ সমাবেশ ডাকা হয়। 

ঢাকা মহানগর শাখা আয়োজিত সমাবেশে ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম বলেন, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম থাকবে, এটা মীমাংসিত বিষয়। এটি নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না।

সম্প্রতি তথ্য প্রতিমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করে তার পদত্যাগ চান ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর উত্তরের সেক্রেটারি মাওলানা আরিফুল ইসলাম।

কুমিল্লার ঘটনার পর বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, পরিস্থিতি কতটা ভয়াবহ হবে তা সরকারের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করবে। সরকার যেভাবে বক্তব্য দিচ্ছে, তাতে সরকার আরেকটি দাঙ্গা করতে চায়। আমরা মনে করছি, সরকারের বিভিন্ন মহলের উসকানিতে কুমিল্লায় এ ঘটনা ঘটেছে।

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে দফতর সম্পাদক লোকমান বলেন, আপনি সংবিধান মানেন না। আপনাকে মন্ত্রী হিসেবে মানি না।

শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক মাওলানা নেছার উদ্দিন বলেন, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে না পারলে পদত্যাগ করুন। এ সরকারকে পুতুল সরকার মনে করি। 

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ। তিনি বলেন, বাজার করে খাওয়ার সক্ষমতা হারাচ্ছে মানুষ। কুমিল্লার ঘটনা ও পরের পরিস্থিতির জন্য সরকারকে দায়ী করেন ফজলে বারী মাসউদ। 

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী। তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে বয়কট করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, মুরাদকে বয়কট করুন।
 
সমাবেশ শেষে বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন নেতাকর্মীরা। মিছিলটি পল্টন মোড় হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড়ে গিয়ে মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
ksrm