বায়ান্নতে বলিউডে ফিরছেন শান্তিপ্রিয়া

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৫ আগস্ট ২০২২, ১৩:৫১

‘শান্তিপ্রিয়া’, ‘নিশান্তি’— একই অভিনেত্রীর ইন্ডাস্ট্রি অনুযায়ী দুই ভিন্ন নাম। তবে, তার আসল নাম ‘শান্তাম্মা’। তামিল ও তেলুগু ছবির সুপারস্টার ‘শান্তিপ্রিয়া’ বলিউডে প্রথম পা রাখেন ‘সৌগন্ধ’ (১৯৯১) ছবির মাধ্যমে। বলিউডের ‘খিলাড়ি’ অক্ষয় কুমারেরও বলিউড অভিষেক এই ছবিতেই। তবে, হিন্দি ছবি নয়, ১৯৮৭ সালে তামিল ছবি ‘এঙ্গা উরু পাতুক্রান’-এ শান্তিপ্রিয়া প্রথম বড়পর্দায় অভিনয় শুরু করেন।

১৯৯১ সালে অক্ষয়ের সঙ্গে যাত্রা শুরু করলেও অভিনেতা যেমন নিজেকে বলিজগতের একটি ব্র্যান্ডে পরিণত করেছেন, সেখানে শান্তিপ্রিয়া রোশনাই থেকে অনেকটাই দূরে। ‘সৌগন্ধ’ ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ার ঠিক পরের বছরেই ফিল্মজগতের আরও এক সুপারস্টার মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে ‘মেরা সজনা সাথ নিভানা’ ছবিতে অভিনয় করেন শান্তিপ্রিয়া। এর পরেও ‘ফুল অউর অঙ্গার’, ‘মেহেরবান’ ছবিতে দু’জনকে একসঙ্গে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। তিনটি ছবির গানই দারুন জনপ্রিয়তা লাভ করে।

১৯৯৪ সাল পর্যন্ত একের পর এক ছবি উপহার দিয়ে গিয়েছেন দর্শকদের। ‘ইক্কে পে ইক্কা’ বড়পর্দায় শান্তিপ্রিয়ার শেষ ছবি। তিনি যখন তার কেরিয়ারে সাফল্যের মধ্যগগনে, তখন তার জীবন নতুন মোড় নেয়। মারাঠি অভিনেতা সিদ্ধার্থ রায়ের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শান্তিপ্রিয়া। মরাঠি ছবিতেও কাজ করেছেন তিনি।

‘ছুপানা ভি নেহি আতা, জতানা ভি নেহি আতা’ গানটির কথা মনে পড়ে? ‘বাজিগর’ ছবিতে অভিনেত্রী কাজলের অনুরাগী হিসাবে পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় সিদ্ধার্থকে। তবে তার আগে ‘পানাহ’, ‘তিলক’, ‘বনশ্’ এর মত সফল ছবিতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেছেন তিনি।

বিয়ের পর নিজের সংসার নিয়েই ব্যস্ত হয়ে পড়েন শান্তিপ্রিয়া। ধীরে ধীরে বড়পর্দা থেকে নিজেকে সরিয়ে এনে ছোটপর্দায় অভিনয় করা শুরু করেন তিনি। কিন্তু তার জীবনে হঠাৎ ছন্দপতন ঘটে। বিয়ের ১২ বছর পর ২০০৪ সালে সিদ্ধার্থ হঠাৎই হৃদ্‌রোগে মারা যান। সংসারের যাবতীয় দায় তার উপর এসে পড়ায় টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় আগের চেয়ে আরও বাড়িয়ে দেন তিনি।

‘মাতা কি চৌকি’, ‘বিশ্বামিত্র’, ‘দ্বারকাধীশ’-এর মতো পৌরাণিক ঘরানার ধারাবাহিকে অভিনয় করে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন শান্তিপ্রিয়া। তবে, ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন নায়িকাদের আবির্ভাবের ফলে প্রতিযোগিতা বাড়তে থাকে। কাজের সুযোগও কমতে থাকে অভিনেত্রীর।

এক সময় কেরিয়ারের তুঙ্গে থাকা এই অভিনেত্রী যখন বলিপাড়া থেকে প্রায় হারিয়ে যাচ্ছেন, ঠিক তখনই আরও এক বার চর্চায় এলেন শান্তিপ্রিয়া। ৫২ বছর বয়সে তিনি আবার সম্পর্কে জড়িয়েছেন, এই খবর প্রচার হতেই বলিপাড়ায় তাকে নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়।  কোরিওগ্রাফার সন্দীপ সোপারকরের সঙ্গে ডেট করছেন তিনি। সংবাদ সংস্থা সূত্রের তথ্য অনুযায়ী, একটি অনুষ্ঠানে আলাপ হয় দু’জনের।

তার পর থেকেই শান্তিপ্রিয়া ও সন্দীপের সম্পর্ক গভীর হতে থাকে। এমনকি, এই জুটি তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে বাইরেও সরব হচ্ছেন। জানা যায়, সন্দীপও এর আগে বিয়ে করেন। এমনকি, সন্তান দত্তকও নেন তিনি। এখন কি তবে চার হাত এক হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন দু’জন? যদিও সেই বিষয়ে কিছু জানাননি শান্তিপ্রিয়া। তবে, দর্শকদের সঙ্গে আরও একটি সুখবর ভাগ করে নিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি, নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, আবার বড়পর্দায় ফিরে আসছেন তিনি। সরোজিনী নাইডুর বায়োপিক ‘সরোজিনী’ ছবিতে নামভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যাবে তাকে। বিনয় চন্দ্র এই ছবির পরিচালক। প্রায় তিন দশক পর আবার কাজ করবেন বলে উৎসাহী অভিনেত্রী।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ