শাহরুখপুত্রকে ফাঁসাতে গিয়ে বিপদে সেই সমীর

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৮ মে ২০২২, ১৭:০৩

বলিউডের কিং খান শাহরুখের ছেলে আরিয়ান খানকে আটকের পর গ্রেফতার করেছিল নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো। প্রথমদিকে বিষয়টা যতটা সহজ ভেবেছিলেন এই স্টার কিড, ততটা সহজ তার পথ ছিল না। মাঝসমুদ্রে চলছিল ‘রেভ পার্টি’। বিশাল সেই ক্রুজে পার্টি চলছিল। আর সেই ক্রুজেই যাত্রীর ছদ্মবেশে প্রবেশ করেছিলেন এনসিবির কর্মকর্তারা। আর সেখানের অন্যতম ছিলেন এনবিসি কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে।

সবকিছু ছাপিয়ে তিনি ছিলেন তখন আলোচনার শীর্ষে। প্রমোদতরি থেকে উদ্ধারের পর শাহরুখপুত্র আরিয়ানকে নিয়ে ঝড় উঠেছিল আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোতে। সেখানে ভিলেন আর ভিকটিম যেই হোক, নায়ক হওয়ার চেষ্টায় ছিলেন এনসিবি জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ে। সবকিছু যেন একা হাতেই সামলেছেন। কিন্তু এবার তিনিই বাদ পড়লেন সেই মাদক মামলার তদন্ত কমিটি থেকে।

মাদক-কাণ্ডে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ দিতে পারেনি ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো। চার্জশিট জমা দেওয়ার পরই নড়েচড়ে বসেছে দেশটির সরকার। কিন্তু আরিয়ান খালাস পাওয়ার পর থেকে এনসিবির সাবেক কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা। গত বছরের ২ অক্টোবর মুম্বাইয়ের উপকূলে প্রমোদতরি কর্ডেলিয়ায় এনসিবি অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সমীর।

এনসিবি কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার সিং বলেছেন, যাদের আসামি করা হয়েছে, তাদের সবার কাছে মাদক পাওয়া গেছে। কিন্তু আরিয়ানের কাছে কোনো মাদক ছিল না। ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, আরিয়ানকে বেকসুর খালাস দেওয়ার পরই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয় অর্থ মন্ত্রণালয়কে। শাহরুখপুত্রের বিরুদ্ধে অসত্য অভিযোগে তদন্ত চালানোর দায়ে সমীরের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে এই মাদক-কাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদসহ তদন্তের ভার ছিল এনসিবি মুম্বাই শাখার ওপর। তার নেতৃত্বে ছিলেন সমীরই। পরে ওই তদন্ত নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠতে থাকায় তদন্তভার চলে যায় ভারতের নিযুক্ত বিশেষ তদন্তকারী দলের কাছে। ভুয়া তদন্ত, তদন্তে প্রভাব খাটানোসহ একাধিক অভিযোগে পদ থেকে সরতে হয়েছিল সমীরকে। এবার আরিয়ানকে চার্জশিটে নির্দোষ ঘোষণার পর শাস্তির মুখে এসে দাঁড়ালেন সাবেক এই এনসিবি কর্মকর্তা।
 

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ