সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের পাশে কবীর সুমন

  হিন্দুস্তান টাইমস

২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১২:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়কে এই বয়সে এসে পদ্মশ্রী দিতে চাওয়াটা, তাঁর প্রতি বিদ্বেষমূলক মনোভাবের পরিচয়। এমনই দাবি কবীর সুমনের। মঙ্গলবার সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় জানান, তাঁকে দিতে চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন। এই ঘটনা প্রসঙ্গেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন শহরের অন্য নামজাদা সঙ্গীতশিল্পী। তাঁর কথায়, বিদ্বেষ থেকে সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়কে পদ্মশ্রী দিতে চাওয়া হয়েছে।

কবীর সুমন সাংবাদিকদের বলেন, শ্বেতাঙ্গরা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নোবেল পুরস্কারটি দিয়েছে। সেখানে বিদ্বেষ দেখায়নি। তাঁর কথায়, ‘সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের কেরিয়ারটা দেখুন। কী কী ধরনের গান গেয়েছেন উনি। এই বয়সে এসে ধাক্কা খেলেন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়।’

কবীর সুমনের মতোই সাহিত্যিক আবুল বাশারও সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্ত সমর্থন করেছেন। সাংবাদিকদের বলেছেন, বাঙালির রোম্যান্স শুরু হয় সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের গানে। প্রকৃত প্রতিভাকে অসম্মান করা হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমের তরফে সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তাঁর মেয়ে সৌমী সেনগুপ্ত এবিপি আনন্দ-কে বলেন, কেন্দ্র থেকে তাঁকে ফোন করে জানানো হয়, পদ্মশ্রী দেওয়া হবে। ১২ বছর বয়সে প্রথম গান রেকর্ড করেন। ৭৫ বছর ধরে সঙ্গীতসাধনা করছেন। এমন শিল্পীকে পদ্মশ্রী দেওয়াটা অপমান ছাড়া কিছুই নয়। অল্পবয়সিদের তা দেওয়া যায়।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ