পুকুরে পুলিশের গাড়ি , দুই এসআই নিহত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০০:২৬

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে পুলিশের বহনকারী প্রাইভেটকার খাদে পড়ে দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও একজন। সোমবার রাত ৭টার দিকে উপজেলার দত্তপাড়া-উদ্ধবগঞ্জ বাজার সড়কের দত্তপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন উপপরিদর্শক (এসআই) কাজী সালেহ আহাম্মেদ ও শরীফুল ইসলাম।
আহত হয়েছেন সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) রফিকুল ইসলাম।  

সোনারগাঁ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুল ইসলাম জানান, সোনারগাঁ থানা-পুলিশের দুই এসআই কাজী সালেহ আহাম্মেদ ও শরীফুল ইসলাম এবং এএসআই রফিকুল ইসলাম একটি প্রাইভেট কারে একজন চালকসহ সোনারগাঁ পৌরসভার দত্তপাড়া এলাকার থানার দিকে আসছিলেন। পথে দত্তপাড়া এলাকায় পৌঁছালে গাড়িটি একটি রিকশাকে সাইড দিতে গিয়ে পাশের পুকুরে পড়ে যায়।  

খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন ও সোনারগাঁ ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা এসে তাঁদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক এসআই কাজী সালেহ ও শরীফুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত রফিকুল ইসলামকে ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ লাইনস হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।  

প্রত্যক্ষদর্শী ও উদ্ধারকারী ভটভটিচালক মোক্তার হোসেন জানান, প্রাইভেট কারটির পেছনেই তিনি ভটভটিসহ ছিলেন। হঠাৎ অপর দিক থেকে আসা একটি রিকশাকে সাইড দিতে গিয়ে পাশের পুকুরে পড়েই গাড়িটি পানিতে ডুবে যায়। তখন চালক কোনোক্রমে গাড়ি থেকে ছিটকে পড়ে আহতাবস্থায় চিৎকার করতে থাকেন। পরে আশপাশের লোকজনসহ গাড়িতে থাকা হাতুড়ি দিয়ে গাড়ির গ্লাস ভেঙে তিনজনকে উদ্ধার করা হয়।  
 
সোনারগাঁ ফায়ার স্টেশন কর্মকর্তা সুজন কুমার হালদার জানান, খবর পেয়ে ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা তিনজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়েছে।

সোনারগাঁও থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থল থেকে তিনজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়। দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। আহত এএসআইকে আমি চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে এসেছি।

এসআই কাজী সালেহ আহাম্মেদ ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মুনসুরাবাদ গ্রামের কাজী নুরুল ইসলামের ছেলে ও শরীফুল ইসলাম গোপালগঞ্জ সদরের চরভাইপাড়া এলাকার ইউসুফ আলীর ছেলে।  

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ