সাদুল্লাপুরের নলডাঙ্গায় আগুনে ৪ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৩:৫৬

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার নলডাঙ্গায় আগুনে কসমেটিক্স ও ঔষধসহ চার দোকান পুড়ে ছাই হয়েছে। এতে অন্তত ১৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাত সোয়া ৯টার দিকে নলডাঙ্গা ইউনিয়নের ১নং রেল গেট সংলগ্ন এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 স্থানীয়রা জানান, হঠাৎ করে শাহিনের কসমেটিক্সের দোকানে প্রথমে অগুনের সূত্রপাত হয়। মুর্হুতের মধ্যে আগুন দ্রুত আশপাশের দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। কিন্তু তার আগেই আগুনে তিন দোকান সম্পূন্ন ও একটি দোকানের আংশিক পুড়ে ছাই হয়ে যায়।


তবে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা বিলম্বে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় আগুনে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগ ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীসহ স্থানীয়দের। বাজারের ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন বলেও দাবি তাদের।

আগুনে শাহিন মিয়ার কসমেটিক্স, ডা. মোসলেম উদ্দিনের ঔষধ (ফার্মেসি), আফতার আলীর মোটর ও শ্যালো পার্টস এবং শহিদুল ইসলামের গালামালের দোকান পুড়ে গেছে। এরমধ্যে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শহিদুলের গালামাল দোকানের।

ক্ষতিগ্রস্ত চার ব্যবসায়ীর দাবি, দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ায় দোকানগুলোর সব কিছুই পুড়ে ছাই হয়ে যায়। দোকানে নগদ টাকাসহ লাখ-লাখ টাকার মালামাল ছিল। অগ্নিকাণ্ডে তাদের অন্তত ১৮ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আগুনে শেষ সম্বল হারিয়ে নিঃস্ব ব্যবসায়ীরা আর মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবেন না বলে বিলাপ করছেন।


তবে বিলম্বে পৌঁছার অভিযোগ অস্বীকার করে সাদুল্লাপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসার গোলাম মোস্তফা বলেন, রাস্তায় কুয়াশার কারণে ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে বেশি সময় লাগছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে দুটি টিম কাজ করে। বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তিনি ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানাতে পারেননি।

এবিএন/মোঃ শহিদুল ইসলাম/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ