আজকের শিরোনাম :

বেনাপোলে হেলে পড়েছে বহুতল ভবন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৬:৫১

যশোরের বেনাপোলে পরিকল্পিত ভাবে ভবন নির্মাল না করায় ভবন হেলে গিয়ে অন্য একটি ভবন ঘেষে দাঁড়িয়েছে। যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ওই দুই বিল্ডিংয়ে দুর্ঘটনা ঘটলে ২থেকে আড়াইশত লোক দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে বলে অভিযোগ করেছে রবি চেম্বার এর মালিক শরিফুল ইসলাম নয়ন। এ বিষয়ে বেনাপোল পৌরসভাকে অবিহিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

ঝুঁকিপুর্ন ভবনের মালিক এজাজ আহমেদ বলেন আমার বিল্ডিং নির্মাণের সময় উপরের দিক যেতে যেতে ওই বিল্ডিংয়ের সাথে কিছুটা মিশে গেছে। আমি কিছু অংশ কেটে ফাঁকা করেছি বাকিটুকু কাটা হবে। এতে তেমন কোন ঝুকি নেই। এছাড়া আমি চারিপাশে আবারও গ্রেড ভিম দিব যাতে কোন অসুবিধা না হয়।

রবি চেম্বার এর মালিক নয়ন বলেন ২০১৮ সালে পাশে এজাজ আহমেদ একটি ৪ তলা ভবন নির্মান করেন। সেই ভবনের পশে আমি আমার একটি ৫ তলা ভবন রয়েছে। সম্প্রতি গত বছর আম্ফান ঝড়ে ভবনটি হেলে গিয়ে আমার ৫ তলা ভবনে লেগে আছে। যে কোন সময় ভুমি কম্পো বা অন্য কোন দুর্ঘটনায় দুই ভবন সহ পাশের কয়েকটি ছোট খাট ভবনের ২৫০ জন লোক ঝুকিতে থাকবে।

এ দিকে স্থানীয় ইমরান হোসেন বলেন,এ ভবন গুলো যেখানে নির্মাণ হয়েছে সেখানে খানা গর্ত ছিলো নিচে মাটি ভরাট করে মজবুত না করা হলে ভবন ধস হতে পারে।ভবনটি ঝুকি পূর্ন হওয়ায় এজাজ বিক্রি করার পায়তারা করছে। কাস্টমারও ঠিক হয়েছিল। ভবনটি ঝুকি পুর্ন জেনে তারা ক্রয় করে নাই।

পৌরসভার সার্ভেয়ার মফিজুর রহমান বলেন,এ নিয়ে রবি চেম্বার থেকে একটি আবেদন দিয়েছে। তবে তেমন কোন অসুবিধা নেই ।তারপরও আমাদের প্রকৌশলী সাহেব বিষয়টি দেখছেন।

এ ব্যাপারে পৌর প্রকৌশলী মোশারফ হোসেন বলেন আমরা বিষয়টি দেখেছি। কিছুটা ভবন নির্মাণের সময় টেকনিক্যাল সমস্যা রয়েছে। পৌরসভা থেকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। কোন দুর্ঘটনা ঘটলে পৌর কর্তৃপক্ষ কোন দায়ভার নিবে না। সকল প্রকার দায়ভার তাকে নিতে হবে।


এবিএন/আইয়ুব হোসেন পক্ষী/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ