দৌলতখানে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ১১, গ্রেপ্তার ২

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ জুন ২০২১, ২০:৩৭

ভোলার দৌলতখানে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দু'পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে অন্তত ১১জন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দুপুরে উপজেলার চরখলিফা ইউনিয়নের দিদার উল্যাহ ৫ নম্বর ওয়ার্ডের শাহাজান হাওলাদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার পাশাপাশি অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করে।

আহতরা হলেন, জাকির হাওলাদার, কবির, আমজাদ, জিহাদ, ফাতেমা, শামীম, মোস্তফা হাওলাদার, সোহাগ মাতাব্বর, কহিনুর বেগম, আবুল বশির মাতাব্বর, খাদিজো বেগম ও বেলায়েত হাওলাদার।

আহতরা ভোলা সদর হাসপাতাল ও দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত জাকির হাওলাদারের অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বরিশাল শের ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

স্থানীয়রা এলাকাবাসী ও আহতরা জানান, প্রতিবেশী বেলায়েত গংদের সঙ্গে শাহাজান হাওলাদার গংদের ১২শতাংশ জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার সালিসও হয়েছে। গত মঙ্গলবার (১৫জুন) ওই বিরোধপূর্ণ জমি থেকে বেলায়েত গংদের নিরব ও আলম হাওলাদার ধানের চারা কেটে নিয়ে যায়। এ নিয়ে ওই দিন দু'পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধেঁ। এতে উভয় পক্ষের লোকজন গুরুতর আহত হয়। ওই ঘটনার জের ধরে বৃহস্পতিবার দুপুরে শাহাজন গংদের রিয়াজ হাওলাদার ও সোহেল হাওলাদার মোটরসাইকেলে ওই এলাকা দিয়ে যাওয়ার পথে বেলায়েত গংদের নিরব ও আলম হাওলাদার তাদেরকে ধাওয়া করে। এতে দু'পক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপের এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। এসময় দু'পক্ষের ঘরে হামলা আসবাব পত্র ভাঙচুরসহ নগদ অর্থ নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় উভয় পক্ষ দৌলতখান থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ ঘটনায় অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করে।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলার রহমান জানান, এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মামলার ভিত্তিতে পুলিশ দু'পক্ষের দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। আসামিদের আদালতের মাধ্যমে ভোলা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ