পটুয়াখালীতে গলায় ফাঁস দিয়ে শ্রমিকের আত্মহত্যা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১৬:২৬

লকডাউনে কাজ বন্ধ থাকায় ওষুধ কেনার টাকা জোগাড় করতে না পেরে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে আনোয়ার হাওলাদার (৫৫) নামের একবৃদ্ধ আত্মহত্যা করেছে।

রাতে উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের নয়ার চর গ্রামের বনের ভেতরে গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীরা জানায়, বাগানের মধ্যে গাছে লাশ ঝুলতে দেখে থানায় খবর দেয়। পরে চরমোন্তাজ ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার কারে।

নিহতের পরিবার সূযত্রে জানা যায়, কেরানীগঞ্জে ইটের ভাটায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন আনোয়ার। প্রথম লকডাউনের পর তিনি কর্মহীন হয়ে পড়েন। লকডাউনে সময়সীমা শেষে হলে কাজ ফিরে পাবেন এমন আসা নিয়ে কিছুদিন ঢাকাতেই থাকেন তিনি। তবে লকডাউনের সময়সীমা বাড়তে থাকায় ১২ এপ্রিল ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি চলে আসেন। আনোয়ার গ্রামে কোনও কাজ মিলাতে পারেনি। এতে পরিবারের লোকদের জন্য খাবার জোগাতে না পেরে তিনি হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন। ১৫ এপ্রিল  অসুস্থ হয়ে পড়েন। তার দারিদ্র পরিবারের পক্ষে চিকিৎসার খরচ বহন করা সম্ভব না হওয়ায় আত্মহত্যার পথ বেছে নেন আনোয়ার ।

চরমোন্তাজ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকার্তা মমিনুল ইসলাম জানান, স্বজনদের কোনও অভিযোগ না থাকায় স্থানীয় লোকজন ও চেয়ারম্যানের দায়িত্বে লাশের দাফন ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ বিষয় জানতে রাঙ্গাবালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকার্তা (ওসি) দেওয়ান জগলুল হাসানের কাছে একাধিকবার ফোন দিয়েও পাওয়া যায়নি। 

এবিএন/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ