কোন দলের সঙ্গে কখন সংলাপে বসবে ইসি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ জুলাই ২০২২, ২১:১১

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আগামী ১৭ই জুলাই থেকে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ শুরু করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। যা চলবে ৩১শে জুলাই পর্যন্ত।

আজ নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আহসান হাবিব খান (অবঃ) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আগামী ১৭ই জুলাই থেকে সকাল-বিকাল রাজনৈতিক দলগুলো সাথে নির্বাচনী সংলাপ করা হবে। প্রতিদিন চারটি দলের সঙ্গে সংলাপ করবে নির্বাচন কমিশন। নিবন্ধিত ৩৯টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

বুধবার (৬ জুলাই) নির্বাচন কমিশন ভবনে সময়সূচি প্রকাশ করেন ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ। তিনি বলেন, ১৭ জুলাই (রোববার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত  জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন, দুপুর  ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ), বিকেল আড়াইটা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত বাংলাদেশ কংগ্রেস ও বিকেল ৪টা থেকে পাঁচটা বাংলাদেশ মুসলিম লীগের (বিএমএল) সঙ্গে বৈঠক করবে ইসি।

১৮ জুলাই (সোমবার) সকাল সাড়ে ১০টা সাড়ে ১১টা বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট,  দুপুর ১২টা থেকে ১টা বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট, আর আড়াই থেকে সাড়ে ৩টা খেলাফত মজলিস, বিকেল ৪টা থেকে ৫টা বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সঙ্গে সংলাপ করবে ইসি।

১৯ জুলাই (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি,  দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টা ইসলামিক ঐক্য জোট, বিকাল আড়াইটা হতে তিন সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস, ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের সঙ্গে সংলাপে বসবে ইসি।

২০ জুলাই (বুধবার) সকাল সাড়ে দশটা  থেকে সাড়ে ১১টায় গণতান্ত্রিক পার্টি ,  দুপুর বারোটা হতে ১টা বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী লীগ পার্টি, বিকেল ৩টা হতে ৫টা পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি।

২১ জুলাই (বৃহস্পতিবার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টা বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি, দুপুর আড়াইটা ধেতে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ ও বিকেল ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত গণফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপ করবে ইসি।

২৪ জুলাই (রোববার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত জাতীয় পার্টি (জেপি),  আড়াইটা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি),  বিকেল ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের সঙ্গে সংলাপ করবে ইসি।

২৫ জুলাই (সোমবার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টা বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বিকাল আড়াইটা থেকে সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ)। আর বিকেল ৪টা থেকে ৫টা লিভারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সঙ্গে সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে।

২৬  জুলাই (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত জমিয়াতে ওলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টা বিকল্পধারা বাংলাদেশ, বিকাল আড়াইটা থেকে সাড়ে ৩টা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বিকেল ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) সঙ্গে সংলাপে বসবে ইসি।

২৭ জুলাই (বুধবার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি), দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত জাকের পার্টি, বেলা আড়াইটা থেকে সাড়ে ৩টা থেকে পর্যন্ত কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সঙ্গে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

২৮ জুলাই (বৃহস্পতিবার) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা গণফোরাম, দুপুর ১২টা থেকে ১টা বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (বাংলাদেশ ন্যাপ), বেলা আড়াইটা থেকে সাড়ে ৩টা বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি।

৩১ জুলাই (রোববার) ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত জাতীয় পার্টি ও বিকেল ৩টা থেকে ৫টা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সঙ্গে সংলাপ করবে ইসি।

এ সময় অতিরিক্ত সচিব বলেন, আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে সংলাপের চিঠি পাঠানো হবে। প্রতিটি দল থেকে ১০ জন করে প্রতিনিধি অংশ নিতে পারবেন।

এদিকে এর আগে ইভিএম যাচাই-বাছাই করতে ৩৯টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল নির্বাচন কমিশন সেখানে ২৮টির রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করে। তবে সেখানে অন্যতম রাজনৈতিক দল বিএনপিসহ ১১টি রাজনৈতিক দল ইসির আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করে।

এবিএন/আব্দুর রাজ্জাক/জসিম/এআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ