পুরান ঢাকায় সাকরাইন উৎসব 

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০:২৪ | আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০:২৯

পৌষ সংক্রান্তির ঢাকাইয়া উৎসব সাকরাইন। আজ বিকেলে পুরান ঢাকায় ঘুড়ি উড়ানোর মধ্য দিয়ে দিনটির উদযাপন শুরু হয়েছে । 

আজ পৌষসংক্রান্তি- অর্থাৎ পৌষ মাসের শেষদিন। শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় এবার পুরান ঢাকার পুরোটা জুড়েই উদযাপন হচ্ছে সাকরাইন উৎসব। সাকরাইনে নানা আয়োজন থাকলেও ঘুড়ি ওড়ানোর প্রতিযোগিতাই ঐতিহ্যবাহী।

সকাল থেকেই পুরান ঢাকায় শুরু হয়েছে উৎসবের আমেজ। প্রতিটি বাসাবাড়িতে চলছে ঘুড়ি ওড়ানোর প্রস্তুতি। সেই সঙ্গে থাকছে গান-বাজনার আয়োজন। বাড়িতে বাড়িতে চলছে পিঠা বানানোর ধুম। ছোট থেকে বৃদ্ধ সবাই মেতেছেন সাকরাইন উৎসবে। সবার চোখেমুখেই যেন উৎসবের ছোঁয়া।

দিনভর ঘুড়ি উড়িয়ে সন্ধ্যায় বিভিন্ন আয়োজনে সবাই আনন্দে মেতে ওঠে পুরান ঢাকাবাসী। সন্ধ্যা নেমে এলে থাকে আতশবাজি ডিজে গানের আয়োজনসহ নানান কিছু। এদিন পুরান ঢাকার সবাই ছাদে উঠে ঘুড়ি উড়ানোর উৎসবে মেতে ওঠে। কিন্তু সাকরাইন উৎসব আগে শুধু পিঠা-পুলি আর ঘুড়ি উড়ানোর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখনকার আয়োজনে ঢাকাইয়াদের সাকরাইন উদযাপনে এনেছে নানা বৈচিত্র্য।

উৎপত্তিগত জায়গায় সংস্কৃত শব্দ 'সংক্রান্তি' ঢাকাইয়া অপভ্রংশে সাকরাইন শব্দে রূপ নিয়েছে। বাংলা পৌষ মাসের শেষ ও মাঘ মাসের শুরুতে ঐতিহ্যবাহী এই ঘুড়ি উৎসবের আয়োজন করে থাকে পুরান ঢাকাবাসী।

এদিকে করোনার বিস্তার আশঙ্কাজনক হারে বাড়তে থাকায় সরকার ১১ দফা বিধি-নিষেধ জারি করেছে। ফলে এবারও এ ঐতিহ্যবাহী উৎসব পালনে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। তবে এ বছর থার্টিফার্স্টে ফানুস পড়ে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অগ্নিকাণ্ড ঘটায় সাকরাইন উৎসব নিয়ে সতর্ক অবস্থানে যাচ্ছে পুলিশ। উৎসবে এবার নিষিদ্ধ করা হয়েছে ফানুস ও আতশবাজি।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
ksrm