বাবার সমর্থনে এবার নাম না করে অনুষ্কাকে তোপ রোহান গাভাস্কারের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:২৩

বাবাকে কাঠগড়ায় তুলে চলছে তীব্র সমালোচনা। হাজারো শব্দবাণে বিদ্ধ করা হচ্ছে তাকে। এমন ‘অকারণ’ বিতর্ক আর সহ্য করতে না পেরে অবশেষে মুখ খুললেন সুনীল গাভাস্কারের পুত্র রোহান গাভাস্কার। বাবার পাশে দাঁড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে নাম না করেই অনুষ্কার বিরুদ্ধে তোপ দাগেন তিনি। সঙ্গে মোক্ষম জবাব দেন সমালোচকদেরও।
 
ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার আইপিএলের ম্যাচে। পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ম্যাচে বিরাট কোহলির খারাপ পারফরম্যান্স নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। সেই প্রসঙ্গেই সুনীল গাভাস্কার বলেন, “লকডাউনে তো কোহলি শুধু অনুষ্কার সঙ্গেই বল নিয়ে খেলেছে। তাতে আর কী লাভ হয়েছে।” 

এই মন্তব্যেই বিতর্কের ঝড় ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিংবদন্তি ভারতীয় ব্যাটসম্যানের মন্তব্যকে সরাসরি ‘অশালীন’ বলে ব্যাখ্যা করা হয়। এমনকী তাকে আইপিএলের ধারাভাষ্য থেকে সরিয়ে দেওয়ারও দাবি ওঠে। বিতর্কের মাঝেই আবার মুখ খোলেন খোদ অনুষ্কা। একটি পোস্টের মাধ্যমে বুঝিয়ে দেন, এমন মন্তব্য করা গাভাস্কারের উচিত হয়নি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে প্রশ্ন তোলেন, কেন স্বামীর পারফরম্যান্স নিয়ে সমালোচনা করার সময় তাঁর নাম টেনে আনা হয়?

পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে আসরে নামেন খোদ সানি। বিতর্ক থামাতে তিনি জানান, তার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। তিনি কোনও অশালীন মন্তব্য করেননি। লকডাউনে টেনিস বলে অনুষ্কার সঙ্গে বিরাটকে ক্রিকেট খেলতে দেখেছিলেন তিনি। যেখানে অনুষ্কার বোলিং করছিলেন। সেই উদাহরণই দিতে চেয়েছেন। তার এই মন্তব্যের প্রধান উদ্দেশ্য ছিল, ক্রিকেটাররা দীর্ঘদিন যে প্র্যাকটিস করতে পারেননি, এই বিষয়টা বলা।

যদিও এরপর আর কোনও পালটা দেননি অনুষ্কা। প্রতিক্রিয়া মেলেনি কোহলিরও। তবে বাবাকে নিয়ে এত সমালোচনা পছন্দ হয়নি রোহন গাভাস্কারের।

এমনিতে খুব একটা লাইমলাইটে আসেন না। তবে এবার এবার আর চুপ থাকতে পারেননি। একটি পোস্ট করে নাম না করেই অনুষ্কা ও বাবার সমালোচকদের খোঁচা দিয়েছেন রোহান। লিখেছেন, ‘আই লাভ চলোকেট (I love cholocate)। আবার পড়ুন। এভাবেই আপনি পরীক্ষায় ফেল করেন।’

অর্থাৎ এক কথার যে অন্য ব্যাখ্যা হয়েছে, অথবা সুনীল গাভাস্কার যেভাবে বিষয়টি বলতে চেয়েছেন, তা বিকৃত করা হয়েছে, সেটাই এই দু’লাইনের পোস্টে স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়েছেন রোহন। এরপর অবশ্য আর বিষয়টি নিয়ে উচ্চবাচ্য করছে না নেটদুনিয়ার বাসিন্দারা।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ