রিয়াল মাদ্রিদের স্বস্তির জয়

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:০৬

মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র করেছিল স্প্যানিশ লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। দ্বিতীয় ম্যাচে আরও একধাপ অবনমনের পথেই ছিল তারা, জেগেছিল পরাজয়ের শঙ্কা। তবে প্রথমে আত্মঘাতী গোলের উপহার আর শেষে পেনাল্টিতে পাওয়া গোলে মৌসুমের প্রথম জয় পেয়েছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে যেমন তাদের মাঠে খেলতে হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদকে, তেমনি দ্বিতীয় ম্যাচেও যেতে হয়েছে রিয়াল বেটিসের মাঠে। যেখানে একপর্যায়ে ২-১ গোলে এগিয়ে গিয়েছিল স্বাগতিকরা। পরে দুই গোল করে কোনোমতে ৩-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

বেটিসের বিপক্ষে পরপর তিন ম্যাচ জয়বঞ্চিত থাকার পর অবশেষে জয়ের দেখা পেলো রিয়াল। আগের তিন ম্যাচে দুইটি জিতেছিল বেটিস, ড্র হয়েছিল অন্যটি। চতুর্থ ম্যাচে এসে জিতল রিয়াল। চলতি মৌসুমে প্রথম দুই ম্যাচ জয়ের পর তৃতীয় ম্যাচে এসে প্রথম পরাজয়ের স্বাদ পেলো রিয়াল বেটিস।

শনিবার রাতের ম্যাচটিতে প্রথম গোল করেছিল রিয়াল মাদ্রিদই। ম্যাচের ১৪ মিনিটের সময় কোনাকুনি শটের জালের ঠিকানা খুঁজে নেন তরুণ ফেডরিখ ভালভার্দে। তবে এর আগে বল জালে প্রবেশ করিয়েছিলেন করিম বেনজেমাও। কিন্তু ফারল্যান্ড মেন্ডির ক্রস রিসিভ করার সময় তিনি অফসাইডে থাকায় গোলটি বাতিল করা হয়।

পিছিয়ে পড়লেও উদ্যম হারায়নি ঘরের মাঠে খেলতে নামা বেটিস। আচমকা সব আক্রমণে রিয়াল রক্ষণের কঠিন পরীক্ষা নিতে শুরু করে তারা। তবে এর মাঝে আবার ফাঁকায় বল পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন রিয়াল অধিনায়ক সার্জিও রামোস। ফলে সে দফায় বেঁচে যায় বেটিস। উল্টো ৩৫ মিনিটের সময় রিয়াল শিবিরে কাঁপন ধরায় স্বাগতিকরা।

সতীর্থ খেলোয়াড় কানালেসের ছোট করে বাড়ানো ক্রসে লাফিয়ে উঠে হেড করে জালের ঠিকানা খুঁজে নেন বেটিসের আলজেরিয়ান ডিফেন্ডার আইসা মেন্ডি। মিনিট দুয়েক পর এগিয়ে যায় বেটিস। পর্তুগিজ মিডফিল্ডার উইলিয়াম কারভালহোর শটে হাত ছোঁয়ালেও তা ফেরাতে ব্যর্থ হন রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কর্তোয়া। যার ফলে ২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় বেটিস।

তবে দ্বিতীয়ার্ধে ফিরেই রিয়ালকে একটি গোল উপহার দিয়ে বসেন বেটিসের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার এমারসন। বেনজেমার উদ্দেশ্যে বল বাড়িয়েছিলেন দানি কারভালহো। মাঝপথে সেটিকে রুখে দেয়ার প্রয়াসে পা এগিয়ে দেন এমারসন। তাতেই বলের দিক পরিবর্তন করে ঢুকে যায় জালে। আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফেরে রিয়াল।

এর মিনিট বিশেক পর স্বাগতিকদের বিপদ আরও বাড়িয়ে দেন এমারসন। রিয়াল ফরোয়ার্ড লুকা জোভিচকে পেছন থেকে ফাউল করায় ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারির সহায়তা নিয়ে এমারসনকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। ফলে শেষের প্রায় ২৫ মিনিট দশজনের দল নিয়েই খেলতে হয় বেটিসকে। তবু আক্রমণের ধার কমেনি তাদের।

কিন্তু ৮২ মিনিটের সময় আবারও নিজেদের ভুলে গোল হজম করে স্বাগতিক দলটি। ডি-বক্সের মধ্যে ফেডরিখ ভালভার্দেকে ফাউল করে বসেন মার্ক বার্ত্রা। এবারও ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারির শরণাপন্ন হন ম্যাচের রেফারি, বাজান পেনাল্টির বাঁশি। সহজতম এই সুযোগ থেকে গোল করে দলকে স্বস্তির জয় এনে দেন রিয়াল অধিনায়ক সার্জিও রামোস।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ