দ্বিতীয় ইনিংসে পাকিস্তানের ছন্দপতন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ আগস্ট ২০২০, ০৯:৪৪

প্রথম ইনিংসে ৩২৬ রান করে পাকিস্তান। স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে আটকে দেয় ২১৯ রানে। এর পর ১০৭ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে সুবিধা করতে পারেনি সফরকারীরা। ছন্দহীন দ্বিতীয় ইনিংসে ১৩৭ রান তুলতেই হারিয়ে বসেছে ৮ উইকেট।

ক্রিজে আছেন টেল এন্ডার ইয়াসির শাহ ও মোহাম্মদ আব্বাস। অবশ্য ইতোমধ্যে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২৪৪ রানের লিড পেয়েছে আজহার আলী-বাবর আজমরা। 

তবু বলাই যায় যে জমে উঠেছে ম্যানচেস্টার টেস্ট। কেননা বর্তমান কন্ডিশন ও পাকিস্তানের বোলিং লাইনআপ বিবেচনায় আড়াইশর কাছাকাছি লক্ষ্য তাড়া করাও খুব কঠিন কাজ হবে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের জন্য। সফরকারীদের শেষ দুই উইকেট এখন লিডটা কোনো পর্যন্ত বাড়িয়ে নিতে পারে সেটিই দেখার।

পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসে করা ৩২৬ রানের জবাবে ইংল্যান্ড অলআউট হয়েছে ২১৯ রানে। যার সুবাদে ১০৭ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নামে আজহার আলির দল। ব্যাটিংয়ে নামা নয় ব্যাটসম্যানের মধ্যে ছয়জনই ছুঁয়েছেন দুই অঙ্ক। কিন্তু কেউই ত্রিশের ঘর পেরুতে পারেননি।

তৃতীয় দিন শেষ হওয়া পর্যন্ত ৪৪ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩৭ রান করেছে তারা। সর্বোচ্চ ২৯ রান করেছেন আসাদ শফিক। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান ২৭ রান করেন। বল হাতে ইংল্যান্ডের পক্ষে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড, ক্রিস ওকস এবং বেন স্টোকস। উইকেটশূন্য রয়েছেন জেমস অ্যান্ডারসন ও জোফরা আর্চার।

এর আগে অলি পোপের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৪ উইকেটে ৯২ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষ করে ইংলিশরা। সেই পোপ যতক্ষণ পর্যন্ত ছিলেন, স্বাগতিকরা মোটামুটি স্বস্তিতে ছিল। জস বাটলারকে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে ৬৫ রান যোগ করেন তিনি। একটা সময় ৪ উইকেটেই ১২৭ রান ছিল ইংল্যান্ডের।

তবে হাফসেঞ্চুরির পর বেশিদূর এগোতে পারেননি পোপ, নাসিম শাহর বলে গালিতে ধরা পড়েন। ৬২ রান করে তিনি ফেরার পর শুরু হয় ইয়াসির শাহর ঘূর্ণি। দারুণ খেলতে থাকা জস বাটলারকে (৩৮) বোল্ড করেন পাকিস্তানি লেগস্পিনার। ডম বেসকে স্লিপে আসাদ শফিকের দুর্দান্ত ক্যাচ বানান ১ রানে। এরপর ক্রিস ওকসও (১৯) বোল্ড।

ইয়াসিরের এমন সাফল্য দেখে আরেক লেগস্পিনার শাদাব খানকেও আক্রমণে নিয়ে আসেন পাকিস্তান দলপতি আজহার আলি। বাকি কাজটা সেরেছেন এই শাদাবই। জোফরা আর্চার (১৬) আর জেমস অ্যান্ডারসকে (৭) তুলে নিয়ে ইংল্যান্ডকে ২১৯ রানে আটকে দেন এই লেগি।

ইয়াসির শাহ ৬৬ রানে নিয়েছেন ৪টি উইকেট। শাদাব মাত্র ৩.৩ ওভার বল করে ১৩ রানে নেন ২ উইকেট। ২ উইকেট পেয়েছেন পেসার মোহাম্মদ আব্বাসও। তার খরচা ৩৩ রান। প্রথম ইনিংসে ১০৭ রানের বড় লিড নিয়ে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নামে পাকিস্তান।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ