সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন জাতীয় নারী ক্রিকেটার জাহানারা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭:৩৪

তামিমদের সাথে সম্মিলিত তহবিলে অংশগ্রহণ করতে পারেননি বলেও আছে তার আক্ষেপ। অনেক ক্রিকেটার মিলে সম্মিলিতভাবে প্রায় ৩১ লাখ টাকা দান করে সরকারি তহবিলে। এবার সেই সাহায্যের তালিকায় যুক্ত হলেন জাতীয় নারী দলের পেসার জাহানারা আলম। দেশের সংকটময় পরিস্থিতিতে এগিয়ে আসছেন তিনি।

মিরপুরে তার বর্তমান ঠিকানার আশাপাশের ৫০ পরিবারকে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পৌঁছে দিয়ে সাহায্য করার প্রস্তুতিও ইতোমধ্যে সেরে ফেলেছেন। দুই একদিনের মধ্যে শুরু হবে বিতরণের কাজও। তিনি জানান, ‘আমি বর্তমানে মিরপুর-৬ নাম্বারে আছি। এখানে অনেক গরীব ও খেটে খাওয়া পরিবারের বসবাস। আমি এরই মধ্যে অন্তত ৫০টি পরিবারের জন্য চাল, ডাল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য দিতে সব কিছু জোগাড় করেছি। আশা করি, দুই একদিনের মধ্যে খাবারগুলো তাদের বাড়িতে পৌঁছে দিতে পারবো।’

জাহানারা আরও বলেন, জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের সম্মিলিত তহবিলের কথা আগে জানলে নিজেও শরীক হতেন। তামিমদের পথে হাঁটার পরিকল্পনা আছে নারী দলের সদস্যদেরও, ‘আমি জানতাম না, জাতীয় দলের ভাইয়ারা বেতনের অর্ধেক দিয়ে দিচ্ছে। তাহলে আমিও দিতাম। কিন্তু এখন যেহেতু সেই সুযোগ নেই, নিজেই কিছু কাজ করছি। আর এখন আমারা জাতীয় নারী দলের সদস্যরা কেউ কাছাকাছি নেই। তাই হয়তো একসঙ্গে হয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না। আশা করি, সবাই আলোচনা করে কিছু একটা আবার করবো।’

এদিকে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলা ক্রিকেটারদের মধ্যে জাতীয় দল ও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বোর্ডের সাথে চুক্তিবদ্ধ নন এমন ক্রিকেটারদের এককালীন আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা আগেই দেয় বিসিবি। আজ (৩০ মার্চ) নারী দলেরও প্রায় শতাধিক ক্রিকেটারের জন্য আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা দেয় বোর্ড। বিসিবির এমন উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন জাতীয় নারী দলের এই পেসার।

গোটা নারী দলই খুশি এমন সিদ্ধান্তে উল্লেখ করে জাহানার ধন্যবাদ দেন বিসিবিকে, ‘আজই (৩০ মার্চ) শুনলাম বিসিবি নারী ক্রিকেটারদের জন্য ২০ হাজার করে টাকা দিচ্ছে যেন এই মুহূর্তে সবাই করোনা প্রতিরোধে নিজেদের প্রস্তুত রাখতে পারে। এটি দারুণ বিষয়। আমি না, আমাদের গোটা নারী দলই ভীষণ খুশি। অবশ্যই আমাদের অভিভাবক বিসিবির এজন্য ধন্যবাদ প্রাপ্য।’

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ