আমি তো চুরি করিনি, আত্মসম্মানবোধের প্রশ্ন আসছে কেন : মাশরাফি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:১৩

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের পর বাংলাদেশের জার্সিতে মাঠে নামেননি বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। জাতীয় নির্বাচনে নড়াইল-১ আসন থেকে নির্বাচিত ব্যস্ত সাংসদ মাশরাফি ক্রিকেট থেকে কিছুটা দূরেই থাকছেন।

এছাড়া দীর্ঘ ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শেষপ্রান্তে এসে বুড়ো কব্জি দিয়ে আগের মতো আগুনে বোলিংও করতে পারছেন না ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ খ্যাত এই টাইগার পেসার। এসব কারণে পারফর্মেন্স আর অবসরের বিষয়টি খুব স্বাভাবিক প্রশ্ন হয়ে উঠেছে। কিন্তু অবসর আর পারফর্মেন্স নিয়ে সাংবাদিকদের ঘনঘন বিরক্তিকর প্রশ্নে রেগেই গেলেন মাশারাফি। দিয়েছেন কড়া জবাব।

সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগে শনিবার অধিনায়কের সংবাদ সম্মেলনের বেশির ভাগ জুড়েই ছিল তার অবসর ও পারফরম্যান্স নিয়ে তীর্যক প্রশ্ন, যা মোটেও হজম করতে পারেননি বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল এই অধিনায়ক। সাংবাদিকদের সাফ জানিয়ে দিলেন, ‘খেলতে নামা, চুরি করা না।’

ক’দিন আগেই বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন, ‘মাশরাফি সম্পূর্ণ ফিট থাকলে জিম্বাবুয়ে সিরিজে অধিনায়ক্ত করবে। এই সিরিজের পর দলের নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক নির্বাচন করা হবে।’

এইসব প্রসঙ্গ টেনে মাশরাফির অবসর ও পারফর্মেন্স নিয়ে প্রশ্ন তোলেন এক সাংবাদিক। প্রশ্নের এক পর্যায়ে বলেই ফেলেন, ‘পারফর্ম করাটা আত্মসম্মানের ব্যাপার’- এমন বক্তব্যে বেজায় চটেছেন মাশরাফি।

কড়া গলায় মাশরাফির উত্তর, ‘আত্মসম্মান বা লজ্জার কথা কেন? আমি কি চুরি করি মাঠে? আমি কি চোর? খেলার সঙ্গে লজ্জা, আত্মসম্মান এসব আমি মেলাতে পারি না। এত জায়গায় চুরি-চামারি হচ্ছে, তাদের লজ্জা নাই? আমি মাঠে এসে উইকেট না পেলে লজ্জা লাগবে?’

তিনি বলেন, ‘আমি কি বাংলাদেশের হয়ে খেলছি নাকি অন্য কোনো দেশের হয়ে, যে লজ্জা পেতে হবে! আমি পারিনি, আমাকে বাদ দিয়ে দেবে। ব্যাপারটি খুব সহজ। কিন্তু লজ্জা-আত্মসম্মানবোধ আমি কার সঙ্গে দেখাতে যাব? আমি তো বাংলাদেশের হয়ে খেলছি। আমি কি বাংলাদেশের মানুষের বিপক্ষের মানুষ? এখন যে কেউ পারফরম না করতেই পারে। তার যদি নিবেদন না থাকে, শৃঙ্খলা না থাকে, সেসব নিয়ে প্রশ্ন হতে পারে।”

মাশরাফি শুধু বাংলাদেশের সফলতম ওয়ানডে অধিনায়কই নন, সফলতম বোলারও। অধিনায়কত্ব পাওয়ার পরও বল হাতে ছিলেন দারুণ সফল। তবে সেই পারফরম্যান্সে ভাটার টান দেখা গেছে গত বিশ্বকাপে।  চোটের সঙ্গে লড়াই করেছে, বিশ্বকাপ জুড়ে ভুগেছেন হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে। নিজের সবশেষ ৫ ওয়ানডেতে পাননি উইকেট।

মাঠের ক্রিকেট নিয়ে এই প্রশ্ন, সমালোচনাকে স্বাগতই জানিয়ে লম্বা উত্তরে বুঝিয়ে দিলেন এখানে আত্মসম্মানকে টেনে আনাটা কতোটা বিরক্তিকর।

তিনি বলেন, ‘উইকেট নাই পেতে পারি। সেজন্য আপনারা, সমর্থকেরা আমার সমালোচনা করবেন। তাতে সম্মানহানির বিষয়টা আমার মাথায় ধরছে না।’

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ