গ্রুপসেরা হয়ে শেষ ষোলোয় লিভারপুল

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:২৮

চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে যেতে সালজবুর্গের সঙ্গে ড্র করলেই চলত লিভারপুলের। কিন্তু হারলেই বাদ পড়তে হতো গ্রুপপর্ব থেকে। প্রথমার্ধের গোলশূন্য স্কোরলাইনে শঙ্কাটা ভালোমতোই জেঁকে বসেছিল তাদের ওপর। তবে দ্বিতীয়ার্ধে পরপর দুই মিনিটে দুই গোল করে সব অনিশ্চয়তার ইতি টেনেছে ‘অল রেড’রা। সালজবুর্গের মাঠে জিতেই নকআউট পর্বের টিকিট নিশ্চিত করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

মঙ্গলবার রাতে ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচটি লিভারপুল জিতেছে ২-০ গোলে। তাতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলোতে চলে গেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। 

প্রতিপক্ষের মাঠে প্রথম ৭ মিনিটেই অন্তত দুই গোল খেতে পারত লিভারপুল। তবে ডাবল সেভ করে অতিথিদের বাঁচান ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকার। লিভারপুলের নাবি কেইতা ও সাদিও মানেকে ফিরিয়ে দেন স্বাগতিক গোলরক্ষকও। তবে সবচেয়ে ভালো সুযোগটা পেয়েছিলেন মোহাম্মদ সালাহ। কিন্তু সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি তিনিও।

গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধের ৫৭ ও ৫৮, পরপর দুই মিনিটে দুই গোল পেয়ে যায় লিভারপুল। প্রথমে বাঁ দিক থেকে একজনকে কাটিয়ে বক্সে ঢুকে এগিয়ে যাওয়া গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে ক্রস বাড়ান মানে। সেই ক্রসে হেডে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন কেইতা।

এর পর অবিশ্বাস্য এক গোলে প্রথমার্ধে সহজ সুযোগ নষ্টের প্রায়শ্চিত্ত করেন সালাহ। পাল্টা-আক্রমণে সতীর্থের বাড়ানো বল নিয়ে এগিয়ে যান মিসরীয় ফরোয়ার্ড। এরপর এগিয়ে আসা গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে দূরুহ কোণ থেকে বল জালে পাঠান। প্রায় ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া শটে বল প্রথম পোস্ট ঘেঁষে গিয়ে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে আশ্রয় নেয়।

বাকি সময়ে আর গোল না পেলেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে সমস্যা হয়নি অতিথিদের। ছয় ম্যাচে চার জয় এবং একটি করে ড্র ও হারে লিভারপুলের পয়েন্ট ১৩। ১২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয়েছে নাপোলি। গ্রুপপর্ব থেকে ছিটকে যাওয়া সালজবুর্গের ৭ ও গেঙ্কের ১ পয়েন্ট।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ