হেরেও অনেক ইতিবাচক দিক খুঁজে পেলেন মুমিনুল

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০০:৫৭

ভারতের বিপক্ষে ইন্দোর টেস্ট দিয়েই বাংলাদেশের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের যাত্রা শুরু হয়েছে। টেস্টের বিশ্বকাপ খ্যাত এ টুর্নামেন্টে টাইগারদের শুরুটা হয়েছে বড় হার দিয়ে। তবে ম্যাচ হেরেও অনেকগুলো ইতিবাচক দিক খুঁজে পেয়েছেন টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের অভিষেক ম্যাচে অভিষেক হয়েছে অধিনায়ক মুমিনুলেরও। বাংলাদেশের ১১তম টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হয়েছে এ ক্রিকেটারের।

অধিনায়কত্বের প্রথম ম্যাচেই তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছে মুমিনুলের। তবে শুরুটা জয় দিয়েই হয়েছিল তার। ম্যাচ হারলেও প্রথমবার টস করতে এসে জয়ের দেখা পেয়েছিলেন এ অধিনায়ক। টস জিতে নিয়েছিলেন ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত।

তবে মুমিনুল টস হারলেই বোধহয় ভালো হতো। অন্তত ম্যাচ শেষে মুমিনুলের কথায় সেটার ইঙ্গিতই পাওয়া গেল, ‘টস অবশ্যই ম্যাচে প্রভাব ফেলেছে। আমরা টসে জিতে ব্যাটিং নেই, সিদ্ধান্তটা কঠিন ছিল।’

ম্যাচটি ইনিংস ও ১৩০ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। তবুও ম্যাচ থেকে অনেকগুলো ইতিবাচক দিক খুঁজে বের করেছেন মুমিনুল। তার ভাষায়, ‘তবে এই টেস্টে অনেকগুলো ইতিবাচক দিক রয়েছে। বিশেষ করে আবু জায়েদের চার উইকেট প্রাপ্তি। মুশফিকুর দুই ইনিংসেই ভালো ব্যাট করেছে। লিটনও ভালো ছিল। আমাদের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানরা প্রতিপক্ষের দুর্দান্ত বোলিং লাইনআপের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ নিয়েছে। আমাদের ১৫-২০ ওভার আরও চেষ্টা করা দরকার ছিল।’

দিনশেষে এ ম্যাচটি ভুলে যেতে চাইবে মুমিনুলরা। কলকাতায় সিরিজের শেষ ম্যাচ নিয়ে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি যে মহাআয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন মুমিনুলদের এখন নজর দিতে হবে সে দিকেই। প্রথমবার দিবারাত্রির টেস্ট খেলবে তারা। এমন দুর্দান্ত ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ কতদিন দীর্ঘস্থায়ী করতে পারবে সেটাই এখন ভাবনার বিষয়। তবে মুমিনুল জানালেন, তার দল চেষ্টা করবে। তিনি বলেন, ‘দিবা-রাত্রির টেস্টে আমাদের কোনো পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই। তবে আমরা চেষ্টা করব এবং ম্যাচটি উপভোগ করতে চাই।’

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ