মাশরাফিকে সংসদ থেকে নোটিশ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৯, ০১:০৬

বাংলাদেশ জাতীয় দলের (ওডিআই) অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। গত ১৮ বছর ধরে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ক্রিকেট খেলে আসছেন তিনি। তার হাত ধরে বদলে গেছে বাংলাদেশের ক্রিকেট। ক্রিকেটার ছাড়াও তার আরও একটি পরিচয় হলো তিনি নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হয়ে নির্বাচিত হন মাশরাফি। একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম বাজেট অধিবেশন উপস্থিত না থাকার কারণে মাশরাফিকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে সংসদ থেকে।

জানা গেছে, বাজেট অধিবেশন হলো জাতীয় সংসদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অধিবেশন। আর এই বাজেট অধিবেশন চলাকালীন একদিনও সংসদে উপস্থিত হননি নড়াইল-২ আসনের সাংসদ মাশরাফি। সংসদের এই দীর্ঘ অধিবেশন ২১ কার্যদিবস চললেও তিনিসহ মোট তিন এমপি সংসদে যান নি বলে জানা গেছে সংসদ সূত্রে। উপস্থিত না হওয়া তিন সংসদ সদস্যের দুজন আওয়ামী লীগের এবং একজন জাতীয় পার্টির।

সূত্র জানায়, চলমান একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশন গত ১১ জুন শুরু হয়ে ১১ জুলাই পর্যন্ত চলে। এর মধ্যে সংসদ অধিবেশনে মোট ২১টি বৈঠক দিবস ছিল। অধিবেশনকালে সদস্যদের উপস্থিতির গড় ছিল ২৫৯ জন। সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন উপস্থিতি ছিল যথাক্রমে ৩০৬ জন (১৩ জুন) এবং ১৫৯ জন (২২ জুন)।

অধিবেশনে আওয়ামী লীগের মাশরাফি বিন মুর্তজা (৯৪ নড়াইল-২), বেগম সিমিন হোসেন রিমি (১৯৭ গাজীপুর-৪) এবং জাতীয় পার্টির হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদসহ সর্বমোট তিনজন অনুপস্থিত ছিলেন।

মূলত সে সময় ক্রিকেট বিশ্বকাপ চলার কারণে সংসদে যেতে পারেননি মাশরাফি। অন্য দুজন শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। গেল ১৪ জুলাই বার্ধক্যজনিত কারণে জাতীয় পার্টির প্রেসিডেন্ট ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের মৃত্যু হয়।

সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া গণমাধ্যমে বলেন, মাশরাফি বিন মুর্তজা আমাদের জাতীয় বীর। তিনি বাংলাদেশের ভাবমূর্তিকে বিশ্বে উজ্জ্বল করেছেন। তিনি কেন সংসদে যান নি, সে বিষয়ে খোঁজ নিয়েছি। সে সময় ক্রিকেট বিশ্বকাপ চলায় তিনি সংসদে যেতে পারেননি। খেলার কারণে দেশের বাইরে ছিলেন মাশরাফি।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ