বিশ্বকাপে সবচেয়ে জঘন্য বোলিং ‘উপহার’ রশিদের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ জুন ২০১৯, ০১:০৫

চলতি বিশ্বকাপের ২৪তম ম্যাচে এশিয়ার দেশ আফগানিস্তানকে ১৫০ রানে হারিয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। ইংলিশদের দেওয়া ৩৯৮ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে হারিয়ে ২৪৭ রানের বেশি করতে পারেনি আফগানরা।

এ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে টপকে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে গেছে স্বাগতিকরা। অন্যদিকে ৫ ম্যাচ খেলে এখনও জয়ের দেখা পায়নি আফগানিস্তান।

দিনটা হয়তো শিগগিরিই ভুলতে চাইবেন এই মুহূর্তে বিশ্ব ক্রিকেটের তিন নম্বর বোলার। মঙ্গলবার বিশ্বকাপের সবচেয়ে জঘন্য বোলিং পারফরম্যান্স ‘উপহার’ দিলেন ছোটখাটো চেহারার রশিদ। ইংল্যান্ডের ব্যাটিং আক্রমণের সামনে এদিন ৯ ওভারে ১১০ রান খরচ করলেন তিনি।

গতবছর বিশ্বক্রিকেটের কনিষ্ঠ বোলার হিসেবে আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে পৌঁছে নজির গড়েছিলেন আফগান স্পিনার রশিদ। স্বাভাবিকভাবেই বিশ্বকাপের আসরে এই লেগ-স্পিনারের উপর বাড়তি প্রত্যাশা ছিল আফগানিস্তান থিঙ্ক-ট্যাঙ্কে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচে ১৭ রানে ২ উইকেট নিয়ে কিছুটা নজর কেড়েছিলেন রশিদ। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেভাবে নজর কাড়তে ব্যর্থ হন তিনি।

তবে মঙ্গলবার (১৮ জুন) অতীতের সব রেকর্ড ছাপিয়ে গেলেন আফগান লেগ-স্পিনার। এমন এক নজির তিনি গড়লেন, বিশ্বকাপের মঞ্চে যার জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলেন না তিনি কিংবা তার দেশ।

১৯৮৩ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে কিউই বোলার মার্টিন স্নেডেনের ১২ ওভারে খরচ করা ১০৫ রানই ছিল এতদিন ছিল রেকর্ডবুকে সবার উপরে। তাঁকে এদিন ছাপিয়ে ৯ ওভারে ১১০ রান দিয়ে বসলেন রশিদ। তালিকায় তিন নম্বরে থাকবে ২০১৫ বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ক্যারিবিয়ান পেসার জেসন হোল্ডারের ১০ ওভারে ১০৫ রান খরচ করা স্পেলটি।

বিশ্বকাপের ইতিহাসে জঘন্য পারফরম্যান্সের তালিকায় ১ নম্বরে থাকার পাশাপাশি ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে এটি দ্বিতীয় সর্বাধিক রান খরচ করার নজির। ২০০৬ জোহানেসবার্গ দক্ষিন আফ্রিকার বিরুদ্ধে ১০ ওভারে সর্বাধিক ১১৩ রান খরচ করেছিলেন অজি পেসার মিক লুইস। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এদিন বিশ্বকাপে ছক্কার রেকর্ড গড়ে ইংল্যান্ড। ওয়ানডে ক্রিকেটে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ২৫টি ছক্কা হাঁকিয়ে রেকর্ড গড়েন ইংরেজ ব্যাটসম্যানরা। দলীয় রেকর্ডের পাশপাশি মঙ্গলবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যক্তিগতভাবেও রেকর্ড ছক্কা হাঁকান ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন ইয়ন মরগান।

আফগান বোলারদের বিরুদ্ধে এদিন অত্যন্ত নির্মম ছিলেন ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন। ৭১ বলে ১৪৮ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি। ইনিংসে ১৭টি ছক্কা ও চারটি বাউন্ডারি মারেন তিনি। স্ট্রাইক-রেট ২০৮.৪৫। পাশাপাশি এদিন ৫৭ বলে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বিশ্বকাপের ইতিহাসে চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি করেন মরগান।

ব্যক্তিগত ২৮ রানে মরগানের ক্যাচ ফেলার খেসারত দিতে হয় আফগানদের। জীবনদান পাওয়ার পর ৪৫ বলে ১২০ রানের ইনিংস খেলেন মরগান। ছক্কার ব্যক্তিগত রেকর্ডের পাশপাশি ইংল্যান্ড এদিন ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বাধিক ২৫টি ছয় মারার রেকর্ড গড়ে। এর আগে তাদেরই ছিল এক ইনিংসে ২৪টি ছক্কার রেকর্ড।

মর্গ্যানের ১৭টি ছক্কা ছাড়াও মইন আলি ৪টি, জনি বেয়ারস্টো ৩টি এবং জো রুট একটি ছক্কা হাঁকান। অধিনায়কের বিধ্বংসী ইনিংসে ভর করে আফগানদের সামনে ৩৯৮ রানের টার্গেট রাখে ইংল্যান্ড।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ