উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয় নিয়ে তারকা ও বিশ্লেষকরা কী বললেন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ জুন ২০১৯, ১৫:২৬ | আপডেট : ২০ জুন ২০১৯, ১৫:২৮

গতকাল ইংল্যান্ডের টনটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয়ের পর সামাজিক মাধ্যমে বিশেষ করে টুইটারে বিশ্বের সাবেক বর্তমান ক্রিকেটার এবং ধারাভাষ্যকাররা নানা রকম মন্তব্য করেছেন।

এর মধ্যে বেশিরভাগই প্রশংসাসূচক, দুয়েকটি হতাশাসূচকও রয়েছে।

টাইগারদের অভিনন্দন জানিয়ে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি বলেছেন, ‘কোনো দলকেই খাটো করে দেখা উচিত নয়, বিশেষ করে বিশ্বকাপের মতো আসরে যখন সবাই নিজেদের সর্বশক্তি নিয়ে আসে।’

আফ্রিদি সাকিব আল হাসান ও লিটন দাসের নৈপুণ্যের প্রশংসা করেছেন।

এদিকে টুইটারে ভারতের সৌরভ গাঙ্গুলীর শুভেচ্ছা বার্তায় ধন্যবাদ জানিয়েছেন সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশের জয় থেকে শিক্ষা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক পাকিস্তানি পেস বোলার শোয়েব আক্তার। তিনি লিখেছেন, ‘আমি আশা করি এখান থেকে আমরা কিছু শিখব। এভাবেই কোনো উইকেটে না হারিয়ে বড় লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করা যায়।’

নিজের টুইটে ভারতের সাবেক পেসার ইরফান পাঠান লিখেছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার পর এখন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে চমৎকারভাবে তাড়া করে জিতেছে বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসানের দুর্দান্ত নৈপুণ্যেই জিতেছে বাংলাদেশ।

সাকিব আল হাসানের প্রশংসা করে শ্রীলঙ্কার সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান ধারাভাষ্যকার রাসেল আর্নল্ড লিখেছেন, ‘সাকিব যে বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার সেটাই কেবল সে প্রমাণ করেনি, সে জানান দিয়েছে সে একজন বিশ্বমানের ব্যাটসম্যানও।’

সাকিবকে শিকারের জন্য তিনি মুখিয়ে থাকবেন বলেও মন্তব্য করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে সাকিবের প্রশংসা করে ভারতের ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে টুইট করেছেন।

পরপর কয়েকটি টুইট করে তিনি সাকিব ও বাংলাদেশের প্রশংসা করেছেন। লিখেছেন, ‘আমি সত্যি সাকিবের ইনিংস উপভোগ করছি। সেটি কেবল সে রান পাচ্ছে বলে নয়, সাথে দরকারের সময় দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্যও।’

আরেক টুইটে তিনি বলেছেন, তার দেখা বাংলাদেশের ম্যাচের মধ্যে এটি ছিল সবচেয়ে শক্তিশালী পারফর্ম্যান্স।

ভারতের আরেক সাবেক ব্যাটসম্যান ভিভিএস লক্ষণ টুইট করেছেন, ‘বিশাল রান তারা কত সহজে তাড়া করেছে তা দেখে বিস্মিত হয়েছি। সাকিব দায়িত্বশীল হয়ে খেলেছে। সে পরপর দুটি সেঞ্চুরি পেয়েছে। তবে আমি মুগ্ধ হয়েছি তরুণ লিটন দাসের পরিপক্ব ব্যাটিং দেখে।’

বাংলাদেশের সাবেক বোলিং কোচ ইয়ান পন্ট টুইটারে লিখেছেন, ‘সাকিবের সব থেকে বড় গুণ হচ্ছে ও সব সময় শোনে এবং শেখে। সে একদম বাচ্চাদের মতো।’

সাকিবকে বিরল এক প্রতিভা আখ্যা দিয়ে পন্ট বলেছেন, এ জয়টা বাংলাদেশের প্রাপ্য।

বাংলায় ‘আমরা করব জয়’ গানের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘আজ রাতে বাঘের গর্জন চলছে, আর টাইগারদের জয়ে আমি খুবই খুশি।’

ভারতীয় ক্রিকেট বিশ্লেষক মোহনদাস মেনন টুইট করে, বিশ্বকাপের ইতিহাসে রান তাড়া করায় বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করেছেন।

কেবল বন্দনা নয়, সাবেক তারকা খেলোয়াড়দের কেউ কেউ বাংলাদেশের জয়ে বিমর্ষ হয়েছেন। আবার সেটা সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করতেও কুন্ঠা করেননি।

যেমন আক্ষেপ করে সাবেক ইংলিশ ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেন লিখেছেন, আহ ওয়েস্ট ইন্ডিজ! পরে তিনি একটি দুঃখবোধক ইমোজি দিয়েছেন।
তথ্যসূত্র : বিবিসি

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ