বিকেএসপিতে সৌম্যের বিস্ফোরক সেঞ্চুরি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:২০

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের প্রথম দিকে ভালো শুরুগুলো বড় করতে পারছিলেন না সৌম্য সরকার। টুর্নামেন্টের শেষের দিকে এসে শুরুটাও পাচ্ছিলেন না। আগের ম্যাচে ফিরেছিলেন শূন্য রানে। লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে আবাহনীর মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ছন্দে ফিরলেন সৌম্য সরকার। বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে তুলে নিলেন সেঞ্চুরি।

আবাহনীর হয়ে আগের ১১ ম্যাচে সৌম্য করেছিলেন মোট ১৯৭ রান। ফতুল্লার ব্যাটিং স্বর্গে খেললেন ৭৯ বলে ১০৬ রানের ঝড়ো ইনিংস। এর মধ্যে ৭২ রানই আসে বাউন্ডারি থেকে। ১৫টি চারের পাশে আছে দুটি ছক্কা। 

০, ১৭, ২, ১, ১৪, ১০, ১২, ২৯, ৪৩, ৩৬ = গত ১০ ইনিংসে সৌম্য সরকারের রান এগুলো। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ইনিংস হচ্ছে ৪৩ রানের। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর হয়ে মোহামেডানের বিপক্ষে ৪৩ রানের সর্বোচ্চ ইনিংসটি খেলেছিলেন সৌম্য। তার আগে ৩৬ রানের ইনিংসটি খেলেছিলেন প্রাইম ব্যাংকের হয়ে।

ছন্দে ফিরতে, একাদশে নিজের দাবি জানিয়ে রাখতে খুব বেশি ম্যাচ নেই সৌম্যর হাতে। ঠিক সময়ে জ্বলে উঠলেন এই তরুণ। রূপগঞ্জের শক্তিশালী বোলিং আক্রমণের বিপক্ষে স্ট্রোকের পসরা সাজিয়ে ছুঁলেন তিন অঙ্ক, লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারে তার পঞ্চম সেঞ্চুরি।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে শুরু থেকেই বোলারদের ওপর চড়াও হন সৌম্য। ৩৯ বলে পৌঁছান পঞ্চাশে, এবারের আসরে তার প্রথম ফিফটি। পরের পঞ্চশ ছুঁতে লাগে কেবল ৩২ বল। নাবিল সামাদের বলে সিঙ্গেল নিয়ে ৭১ বলে সৌম্য পৌঁছান শতরানে।

সেঞ্চুরির পর বেশিদূর যেতে পারেননি এই বাঁহাতি ওপেনার। তবে ছন্দে ফেরার আভাস দিলেন সৌম্য। এগিয়ে আসছে বিশ্বকাপ, তিনিও ফিরছেন স্বরূপে।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food