ক্ষমা চাইলেন সরফরাজ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৩২

দক্ষিণ আফ্রিকার পেস বোলিং অলরাউন্ডার আন্দেলো ফেহলুখায়োকে বর্ণবাদী মন্তব্য করে ক্রিকেট বিশ্বের সমালোচনার তোপে পড়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। পড়তে পারেন আইসিসির নিষেধাজ্ঞা কিংবা জরিমানার কবলেও।

তবে নিজের ভুল বুঝতে পেরে সময়মতো ক্ষমা চাওয়ায় এ দফায় বেঁচে যেতে পারেন সরফরাজ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে আনুষ্ঠানিক বার্তার মাধ্যমে ক্ষমা চেয়েছেন সরফরাজ। এ ছাড়া পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকেও দেয়া হয়েছে পৃথক বার্তা।

চলতি ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার আন্দেলো ফেহলুখায়োকে উদ্দেশ করে উইকেটের পেছনে দাঁড়ানো সরফরাজ বর্ণবাদী কথা বলেছেন, যা কিনা ধরা পড়েছে স্ট্যাম্প মাইক্রোফোনে। যদিও কথাগুলো ছিল উর্দুতে।

দক্ষিণ আফ্রিকা তখন পাকিস্তানের ২০৩ রান তাড়া করছিল। ব্যাটিংয়ে ছিলেন ফেহলুখায়ো। একপর্যায়ে একটি বল এজ হয়ে একটুর জন্য স্টাম্প মিস করে যায় তার। যে বলটি থেকে সিঙ্গেল নেন এই অলরাউন্ডার।

ফেহলুখায়োর তখন মাত্র হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ হয়েছে। স্টাম্পের পেছন থেকে উর্দুতে সরফরাজকে যা বলতে শোনা যায়, বাক্যগুলো ইংরেজিতে অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, ‘আরে কালো ছেলে, তোমার মা আজ কোথায় বসে আছে? তোমার জন্য আজ তাকে কি (প্রার্থনা) করতে বলেছো?’

শেষ পর্যন্ত ফেহলুকায়ো ক্যারিয়ারসেরা ৬৯ রানের ইনিংসে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন। ৪২ ওভারে ৫ উইকেট হাতে রেখেই ম্যাচটি জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে সরফরাজের ওই কথার ভিডিওটি রয়ে গেছে, যা কিনা স্পষ্ট বর্ণবাদ।

পরে নিজের ভুল বুঝতে পেরে টুইটার বার্তায় ক্ষমা চেয়ে সরফরাজ লিখেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে গত ম্যাচে আমার হতাশা থেকে বলা কথার কারণে যারা মনে আঘাত পেয়েছেন তাদের সবার কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থনা করছি। আমার কথাগুলো আসলে কোনো ব্যক্তি বা জাতিকে ছোট করার উদ্দেশ্যে বলা ছিলো না এবং কাউকে মনে কষ্ট দেয়ার কোনো ইচ্ছে আমার ছিল না।

এমনকি আমি সেই কথাগুলো তাদের বোঝা বা শোনার জন্যও বলিনি (যেহেতু ইংলিশে না বলে উর্দুতে বলা হয়েছে)। আমি অতীতেও আমার সতীর্থ কিংবা প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়দের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ ব্যবহার ও সম্পর্ক স্থাপন করে এসেছি, ভবিষ্যতেও তাই করবো। বিশ্বের যে কোনো প্রান্তের যেকোনো প্রতিপক্ষকেই যথাযথ সম্মানও দেব।’

এদিকে সরফরাজের সেই বর্ণবাদী মন্তব্যের ভিডিও ফুটেজ খতিয়ে দেখছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। 

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ