বিদায় বলে দিলেন আফ্রিকার ‘কালো মানিক’

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৩ নভেম্বর ২০১৮, ১৪:৫১

তার বয়সের অনেকেই বহু আগে ফুটবলকে বিদায় বলেছেন। খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ারের ইতি টেনে কেউ কেউ কোচিং অধ্যায়ও শুরু করেছেন। একটু দেরিতে হলেও অবশেষে বুট জোড়া তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দিদিয়ের দ্রগবা।

আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে আগেই বিদায় নিয়েছেন আইভরি কোস্টের সাবেক অধিনায়ক। বৃহস্পতিবার ক্লাব ক্যারিয়ারের সমাপ্তি টানলেন আফ্রিকার ‘কালো মানিক’ খ্যাত এই তারকা ফুটবলার। ইউনাইটেড সকার লিগের (ইউএসএল) নতুন মৌসুম খেলার কথা থাকলেও খেলছেন না তিনি।

ফনিক্স রাইজিংয়ের একটা অংশের মালিক দ্রগবা। এই ক্লাবের জার্সিতেই এ মাসের শুরুতে বিদায়ী ম্যাচটা খেলে ফেলেছেন চেলসির সাবেক স্ট্রাইকার। ইউএসএল কাপের ফাইনালে লুইসভিলের কাছে হেরে গেছে তার দল ফনিক্স রাইজিং।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসিকে এক সাক্ষাৎকারে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন দুইবারের আফ্রিকান বর্ষসেরা ফুটবলার। দ্রগবা বলেছেন, ‘আমি বিশ বছর ধরে খেলে যাচ্ছি। একটা সময় আমাকে অবসরের সিদ্ধান্তটা নিতেই হতো। আমার মনে হয় এটাই বিদায় বলার উপযুক্ত সময়।’

বিশ বছরের ফুটবল অধ্যায়ে সর্বমোট নয়টি ক্লাবের জার্সিতে খেলেছেন দ্রগবা। তার ক্যারিয়ার সেরা সময়কালটা ছিল চেলসির জার্সিতে। পশ্চিম লন্ডনের এই ক্লাবের হয়ে চারটি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, চারটি এফএ কাপ এবং তিনটি ইংলিশ লিগ কাপ জিতেছেন দ্রগবা।

৪০ বছর বয়সী দ্রগবা চেলসির হয়ে সবচেয়ে বড় সাফল্যটা পেয়েছেন ২০১২ সালে। ওই বছর তার পেনাল্টি গোলেই উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের থ্রিলার ফাইনালে বাজিমাত করে চেলসি। অ্যালিয়েঞ্জ এরিনায় টাইব্রেকে বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো চেলসি জিতে ইউরোপের শীর্ষস্থানীয় প্রতিযোগিতার স্বপ্নের রূপালি ট্রফি।

দুর্দান্ত এসব সাফল্যই দ্রগবাকে দিচ্ছে কিংবদন্তির মর্যাদা। চেলসির সর্বকালের সেরাদের কাতারেও রাখা হচ্ছে আইভরি কোস্টের সাবেক অধিনায়ককে। প্রথম মেয়াদে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজ ছাড়ার পর দ্রগবা যোগ দেন তুর্কি ক্লাব গালাতাসারাইয়ে। সেখানে জেতেন তুরস্কের শীর্ষস্থানীয় প্রতিযোগিতার মুকুট সুপার লিগ।

অবশ্য ক্লাব ক্যারিয়ারে অর্জনের খাতাটা সমৃদ্ধ হলেও জাতীয় দল আইভরি কোস্টের হয়ে কিছুই জিততে পারেননি দ্রুগবা। যদিও তার দুর্দান্ত নৈপুণ্যের সুবাদে দুইবার আফ্রিকান নেশনস কাপের ফাইনালে উঠেছিল আইভরি কোস্ট।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ