প্রস্তুতি ম্যাচে ফিফটি করে জাতীয় দলে সাদমান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ২১:১০

আগে থেকেই সাদমান ইসলাম অনিককে দলে নেয়ার গুঞ্জন ছিল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে ৭৩ রানের ইনিংস খেলে জাতীয় দলে সুযোগ পেলেন সাদমান। এর আগে প্রাথমিক দলে জায়গা পেলেও এই প্রথম মূল দলে সুযোগ পেলেন ২৩ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার।

শুধু প্রস্তুতি ম্যাচের পারফরম্যান্স বিবেচনাই নয়, সাম্প্রতিক সময়ে ধারাবাহিক খেলছেন সাদমান। সব শেষ জাতীয় লিগের ছয় রাউন্ডে দুই সেঞ্চুরি এবং তিন ফিফটিতে ৬৪.৮০ গড়ে ৬৪৮ রান করেছেন ঢাকা মেট্টোর এই টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান। মূলত সাম্প্রতিক ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের কারণেই তাকে দলে নেয়া।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজকে সামনে রেখে আগেই ১৩ সদস্যের দল ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ঘোষিত সেই দলে ছিলেন না সাদমান। প্রস্তুতি ম্যাচে ১৬৯ বলে ১০ চার ও এক ছক্কায় ৭৩ রান করার পাশাপাশি ওপেনিংয়ে সৌম্য সরকারের সঙ্গে ১২৬ রানের জুটি গড়েন সাদমান।

সাদমানকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট দলে নেয়া প্রসঙ্গে জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন বলেন, আমরা আগেই বলেছিলাম প্রস্তুতি ম্যাচের পারফরম্যান্স দেখে দুই একজনকে দলে নেয়া হতে পারে। সাদমান অনেক দিন ধরেই আমাদের পরিকল্পনায় ছিল। সে ধারাবাহিক পারফর্ম করছে। প্রস্তুতি ম্যাচেও ভালো করেছে। আমাদের মনে হয়েছে সে এখন টেস্ট খেলার জন্য প্রস্তুত তাই দলে নেয়া।

চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ৩০৩ রান করে উইন্ডিজ। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে সাদমান ইসলাম এবং সৌম্য সরকারের জোড়া ফিফটিতে ৫ উইকেটে ২৩২ রান সংগ্রহ করে বিসিবি একাদশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন সৌম্য। ৭৩ রান করেন সাদমান। প্রস্তুতি ম্যাচটি ড্র হয়।

প্রথমবার জাতীয় দলে সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত সাদমান বলেন, ‘অনেক ভালো লাগছে। আশা ছিল প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো খেললে সুযোগ আসতেও পারে। যেহেতু চট্টগ্রাম টেস্টে দল দেওয়া হয়েছিল ১৩ জনের। অনেক দিনের একটা স্বপ্ন পূরণ হলো। জানতাম ভালো খেললে সুযোগ আসবে। এখন লক্ষ্য থাকবে সুযোগ পেলে সেটি কাজে লাগানোর।’ আগামী বৃহস্পতিবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রামে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরু হবে।

বাংলাদেশ টেস্টে দল: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মোহাম্মদ মিঠুন, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, আরিফুল হক, মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, তাইজুল ইসলাম, খালেদ আহমেদ, নাঈম হাসান ও সাদমান ইসলাম।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ