পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে ভারত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৫৪

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ মানেই আলাদা উত্তাপ। হোক সেটা ক্রিকেট, হকি কিংবা ফুটবল। কিন্তু ভারত সাফ ফুটবলে পাকিস্তানকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠে গেছে। বুঝিয়ে দিয়েছে সব জায়গায় উত্তাপ খোঁজা বোকামি। অবশ্য দুই দলের একজন করে ফুটবলার লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়েছেন ফুটবল বিরোধী উত্তাপ ছড়িয়ে।  

বুধবার ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সাফ ফুটবলে ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হয় ভারত-পাকিস্তান। দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লড়াই নিয়ে কিছুটা হলেও ছড়িয়েছে উত্তেজনার পারদ। তবে শেষ হাসি হেসেছে ভারত। পাকিস্তানকে ভালো মতোই হারিয়েছে তারা। পরিসংখ্যান কিংবা শক্তির বিচারে পাকিস্তান অবশ্য কখনোই ভারতের ধারের কাছে ছিল না। ভারতের ফিফা র‌্যাংকিং ৯৬। সেখানে পাকিস্তান দু'শর ওপরে। 

তবে ভারত-পাকিস্তান বলে ফেভারিট তকমাটাও কারও গায়ে সেটে দেওয়ার উপায় ছিল না। ভারত ফেভারিট থাকলেও পাকিস্তান পুরো ম্যাচে তাদের বেশ পরীক্ষায় ফেলার চেষ্টা চালিয়েছে। লড়ে গেছে প্রায় সমানে সমানে। কিন্তু গোল করতে পারেনি তারা। পাকিস্তানও প্রথমার্ধে নিজেদের জালে বল জড়াতে দেয়নি ভারতকে। 

তবে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে আর আটকে রাখতে পারেনি মানভির সিংদের। ম্যাচের ৪৮ মিনিটের মাথায় প্রথম গোল করেন ভারতের তারকা ফুটবলার মানভির সিং। এরপর দলকে ৬৯ মিনিটে ২-০ গোলে এগিয়ে নেন তিনি। ম্যাচের শেষ দিকে ৮৪ মিনিটে গোল করে ব্যবধান বড় করেন সুমিত। দ্বিতীয়ার্ধের ওই তিন গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারতো সাতবারের চ্যাম্পিয়নরা। 

কিন্তু এরপরই মেজাজ হারিয়ে বসে দুই দল। ম্যাচের ৮৬ মিনিটের মাথায় মাঠে ফুটবল বিরোধী মনোভাব দেখোনোয় লাল কার্ড দেখেন পাকিস্তানে এবং ভারতের দুই ফুটবলার। পাকিস্তানের মহাসিন আলী এবং ভারতের লালিয়ানজুলা চাংতি ছাড়েন মাঠ। এর পরপরই এক গোল শোধ দেয় পাকিস্তান। ম্যাচের ৮৮ মিনিটে গোল করে ব্যবধান কমান হাসান বাশির।          

 ম্যাচে অবশ্য ভারত বল দখলে পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে ছিল। পায়ে ৫৫ শতাংশ বল রাখে তারা। তবে গোলের লক্ষ্যে সাতটি শট নিয়েছে পাকিস্তান। পরিকল্পিত খেলা ভারত চার শট নিয়ে তিনটিতে গোল পেয়েছে। ভারত অবশ্য গোলে মোট শট নিয়েছে আটটি। পাকিস্তান সাতটি। সফল পাস দেওয়ার ক্ষেত্রেও পিছিয়ে ছিল না দু'দল। তবে তরুণ ভারতের বিপক্ষে পেরে ওঠেনি পাকিস্তান।

দিনের প্রথম সেমিতে নেপালকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে মালদ্বীপ। সাফের ফাইনালে তাই ভারত-মালদ্বীপ আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় মুখোমুখি হবে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ