‘স্বজন হত্যার বিচার চাওয়ার অধিকারটুকুও আমার ছিল না’

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ আগস্ট ২০১৮, ২০:০৬

ঢাকা, ০৫ আগস্ট, এবিনিউজ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আত্মীয়-স্বজন প্রিয়জনের হত্যার বিচার চাওয়ার অধিকার সবার থাকে। কিন্তু আমার সেই অধিকারটুকুও ছিল না। জাতির জনককে হত্যার পর স্বৈরশাসক ক্ষমতায় এসে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে খুনিদের বিচারের পথ বন্ধ করে দিল। আমি বিচারটাও চাইতে পারলাম না।

তিনি আজ রবিবার গণভবনে ভিডিও কনফারেন্সে ৮টি বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র, দুটি নবনির্মিত গ্রিড উপকেন্দ্র ও ২১টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পঁচাত্তরে ১৫ আগস্ট আমি হারালাম বাবা-মা-ভাই-ভাবী-স্বজন, আর জাতি হারালো তার ভাগ্যেন্নয়নের সারথীকে। সেদিন আমি ও আমার ছোট বোন বিদেশে ছিলাম বলে বেঁচে গিয়েছিলাম। বিদেশে ছিলাম রিফিউজির মতো।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশে ফিরতে চেয়েছিলাম কিন্তু দেশে আসতে দেওয়া হয়নি। পরে ১৯৮১ সালে দেশে ফেরার পর বিচার চাওয়ার অধিকার থেকেও বঞ্চিত হলাম।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানী উপদেষ্টা ড. তৌফিক ইলাহী, জ্বালানী প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এবিএন/মাইকেল/জসিম/এমসি

এই বিভাগের আরো সংবাদ