সততার সঙ্গে জনগণের সেবা করতে ডিসিদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৪ জুলাই ২০১৮, ১২:৫১ | আপডেট : ২৪ জুলাই ২০১৮, ১৫:০৬

ঢাকা, ২৪ জুলাই, এবিনিউজ : ঔপনিবেশিক মানসিকতা পরিহার করে সততার সঙ্গে জনগণের সেবা করতে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারের নেওয়া উন্নয়ন প্রকল্পগুলো যাতে সঠিকভাবে বাস্তবায়ন হয়, সেদিকেও লক্ষ রাখতে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

আজ মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ৩ দিনব্যাপী ডিসি সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাজেটের টাকায় উন্নয়ন কাজ চলছে। সরকারের এসব উন্নয়ন প্রকল্প সঠিকভাবে তদারকি করতে হবে। দেশের সম্পদ কাজে লাগিয়ে দারিদ্র্যকে জয় করতে হবে। তৃণমূলে মানুষের সমস্যা সমাধানে উদ্ভাবনী কৌশল কাজে লাগাতে হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দুই মেয়াদ পূর্ণ করায় দেশের গতিশীল উন্নয়ন হচ্ছে। আমরা এবার ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট দিতে পেরেছি। এখন আমাদের ভিক্ষা চাইতে হয় না, কারো সাহায্য চাইতে হয় না।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ইনফ্লেশন কমিয়ে এনেছি। ইনফ্লেশন নিয়ন্ত্রণে থাকলে এবং প্রবৃদ্ধি বাড়লে দরিদ্র মানুষ এর সুফল ভোগ করতে পারে।

এ দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজ কার্যালয়ের ‘শাপলা’ হলে এ সম্মেলন উদ্বোধন করেন।

এ সময় মন্ত্রিসভার সদস্য, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ও মন্ত্রণালয়ের সচিবরা উপস্থিত ছিলেন। তাদের সঙ্গে মুক্ত আলোচনায় অংশ নেবেন দেশের ৬৪ জেলায় কর্মরত জেলা প্রশাসক এবং ৮ বিভাগীয় কমিশনার।

ডিসি সম্মেলনকে সামনে রেখে এর আগে মোট ৩৪৭টি প্রস্তাব পাঠিয়েছেন ডিসিরা। তারা নিজেদের প্রস্তাব ও সুপারিশ লিখিত আকারে পাঠিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে। সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় ডিসিরা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে মতবিনিময় করবেন এবং রাতের খাবার খাবেন। তৃতীয় দিনের (২৬ জুলাই) অনুষ্ঠান শেষে সম্মেলনের বিষয়বস্তু সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রেস ব্রিফিং করবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

এ সম্মেলনে সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে গিয়ে মাঠ পর্যায়ে মুখোমুখি হওয়া নানা প্রতিবন্ধকতা ও সমস্যার কথা প্রধানমন্ত্রীর সামনে খোলামেলাভাবে তুলে ধরবেন ডিসিরা। উদ্বোধনের পর বাকি অধিবেশনগুলো হবে সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষে।

এ বছর ডিসি সম্মেলনের প্রধান প্রধান অলোচ্য বিষয়ের মধ্যে রয়েছে ভূমি ব্যবস্থাপনা, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহের কার্যক্রম জোরদারকরণ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, ত্রাণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম,সামাজিত নিরাপত্তা বেষ্টনি কর্মসূচি বাস্তবায়ন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহার এবং ই-গভর্নেন্স, শিক্ষার মান উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ, স্বাস্থ্যসেবা ও পরিবার কল্যাণ, পরিবেশ সংরক্ষণ ও দুষণরোধ, ভৌত অবকাঠামোর উন্নয়ন এবং উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও সমন্বয়।

মাঠ প্রশাসনকে চাঙ্গা রাখা, উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নে গতি আনা, তৃণমূল পর্যায়ে সরকারের নীতি ও দর্শনের বাস্তবায়ন এবং পর্যালোচনা, সরকারের নীতিনির্ধারক ও জেলা প্রশাসকদের মধ্যে সরাসরি মতবিনিময় এবং প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেয়ার জন্য প্রতি বছর জেলা প্রশাসক সম্মেলনের আয়োজন করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ