শেখ হাসিনা-রুহানি বৈঠক; দুই নেতাই চান অর্থনৈতিক সম্পর্কের উন্নয়ন

  প্রেসটিভি

২৬ অক্টোবর ২০১৯, ০০:২০ | আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০১৯, ১০:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের সব মুসলিম দেশকে একটি পরিবারের মতো ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি। তিনি শুক্রবার আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন বা ন্যামের শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে এ আহ্বান জানান।

রুহানি বলেন, মুসলিম দেশগুলোর উচিৎ পারস্পরিক মতবিরোধ দূরে ঠেলে একটি পরিবারের মতো ঐক্যবদ্ধ থাকা। কারণ মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে বিদ্যমান অনৈক্য ও মতবিরোধ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থ রক্ষা করছে। তিনি আরও বলেন, মুসলিম দেশগুলো ঐক্যবদ্ধ থাকলে বিশ্বের কোনো শক্তি এমনকি আমেরিকাও তাদের জন্য কোনো সমস্যা সৃষ্টি করতে পারবে না।

আঞ্চলিক সমস্যাগুলোর জন্যও বিজাতীয়দের হস্তক্ষেপকে দায়ী করেন ইরানের প্রেসিডেন্ট। তিনি ইয়েমেন যুদ্ধ ও আঞ্চলিক দেশগুলোর সম্পর্কে এর প্রভাবের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, যেসব সমস্যার কারণে আঞ্চলিক দেশগুলোর মধ্যে বিরোধ দেখা দিয়েছে সেগুলো সমাধানে তেহরান সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে।

অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের উন্নয়নে সন্তোষ প্রকাশ করে রুহানি বলেন, ইরান অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বিশেষকরে জ্বালানি খাতে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে প্রস্তুত রয়েছে। ইরানের প্রেসিডেন্ট রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানেও সহযোগিতা করতে প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন।

এ সময় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের সব দেশ বিশেষকরে বন্ধুপ্রতীম মুসলিম দেশ ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী। শেখ হাসিনা বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণকারী রোহিঙ্গা মুসলমানদের সর্বশেষ পরিস্থিতিও তুলে ধরেন। তিনি জানান, বাংলাদেশ রোহিঙ্গা মুসলমানদেরকে তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও বলেছেন, আয়তনের দিক থেকে বাংলাদেশ একটি ছোট্ট দেশ হলেও জনসংখ্যা অনেক। এরপরও বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বেশ উন্নতি সাধন করতে সক্ষম হয়েছে। আজারবাইজানের বাকুতে আজ ন্যামের শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ