মির্জাপুরে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী, ৩১ প্রকল্পের উদ্বোধন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০১৯, ১২:৪৮ | আপডেট : ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৫:৫৭

দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা স্মারক স্বর্ণপদক প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দিতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মির্জাপুর হেলিপ্যাডে অবতরণ করে শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টার। এ সময় জেলা পুলিশ প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করে।

পরে প্রধানমন্ত্রী কুমুদিনী কমপ্লেক্স থেকে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে ৩১টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

কুমুদিনী ট্রাস্টের পরিচালক ভাষা সৈনিক প্রতিভা মুৎসুদ্দি, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজের শিক্ষা উপদেষ্টা অধ্যাপক এম এ জলিল, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল হালিম, ভারতেশ্বরী হোমসের অধ্যক্ষ মো. আনোয়ারুল হক এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট অব বেঙ্গল (বিডি) আয়োজিত প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে রণদা প্রসাদ সাহা স্মারক স্বর্ণপদক দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া কুমুদিনী হাসপাতাল ও ভারতেশ্বরী হোমস পরিদর্শন করবেন তিনি।

বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার আগমনকে কেন্দ্র করে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে মির্জাপুরসহ সারা টাঙ্গাইলে। বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে কুমুদিনী হাসপাতাল, ভারতেশ্বরী হোমস, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ, কুমুদিনী নার্সিং স্কুল অ্যান্ড বিএসসি নার্সিং কলেজসহ কুমুদিনী কমপ্লেক্সের সেবাধর্মী বিভিন্ন ইউনিট, এমনকি পুরো মির্জাপুর উপজেলা। কুমুদিনী হাসপাতালের মূল ভবনের দক্ষিণ পাশে সম্প্রতি নির্মাণ করা হয়েছে দানবীর রনদা প্রসাদ সাহার মুড়ালসহ বিভিন্ন স্থাপনা। প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে কুমুদিনী কমপ্লেক্সের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মধ্যে তৈরি হয়েছে উৎসবের আমেজ। 

প্রসঙ্গত, উপমহাদেশের প্রখ্যাত দানবীর, মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, নারী শিক্ষা ও নারী জাগরণের অগ্রপথিক দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা। তার জন্ম টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে। আজীবন আর্ত মানবতার সেবায় কাজ করেছেন তিনি। টাঙ্গাইলসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রতিষ্ঠা করেছেন একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ দাতব্য চিকিৎসালয়। মহান মুক্তিযুদ্ধেও রয়েছে তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশীয় রাজাকারদের সহায়তায় পাকিস্তানি হানাদাররা তাকে অপহরণ করে নির্মমভাবে হত্যা করে লাশ গুম করে।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ