ঐক্যফ্রন্ট যেকোনো মুহূর্তে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে পারে: শেখ হাসিনা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৭:৩৪

বিভ্রান্ত না হয়ে জনগণকে আগামীকাল ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। আজ শনিবার (২৯ ডিসেম্বর) সিএমএইচ-এ দিনাজপুরে দুর্বৃত্তের হামলায় আহত চিকিৎসককে দেখতে গিয়ে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা রক্ষায় সবাইকে স্বাচ্ছন্দে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় দিনাজপুরের বালুবাড়িতে দুর্বৃত্তের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ড. মাহবুবে আলম। এতে বাম হাতের দুই আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন ও মাথায় মারাত্মক জখম নিয়ে তাকে ভর্তি করা হয় ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে।

শনিবার সকালে আহত ডা. মাহবুবে আলমের চিকিৎসার খোঁজ নিতে সিএমএইচ-এ যান আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। সেখানে আহতের পরিবার ও চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে সংবাদ মাধ্যমকর্মীদের শেখ হাসিনা বলেন, ‘চোরাগোপ্তা হামলায় সন্ত্রাসের মাধ্যমে নৈরাজ্য সৃষ্টির অপচেষ্টা করছে বিএনপি ও ঐক্যফ্রণ্ট।’ তিনি বলেন, ‘তারা বিশ্বব্যাপী অভিযোগ জানিয়ে বেড়াচ্ছে। আবার আমাদের কর্মীদের ওপর আঘাতও হানছে। হয়তো নির্বাচন চলাকালীন তারা হটাৎ নিজেদের প্রত্যাহার করে নেবে।’ 

বিএনপি নিজেদের মধ্যে সংঘাত করে আওয়ামী লীগের ওপর দায় চাপাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন শেখ হাসিনা। তিনি শেষ পর্যন্ত সবাইকে ধৈর্য ধরতে বলেছেন।

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও তারা আমাদের এতগুলো নেতাকর্মীকে হত্যা করেছে। আমি সবাইকে ধৈর্যধারণ করতে বলেছি, যাতে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হতে না পারে।’

গণতান্ত্রিক ধারা বজায় রাখতে আওয়ামী লীগ সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের অপেক্ষায় রয়েছে বলেও জানান আওয়ামী লীগ প্রধান।

তিনি উল্লেখ করেন, ‘অনেক সংগ্রাম করে আমরা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছি। উন্নয়নের এ ধারা বজায় রাখার জন্য গণতন্ত্রের এ ধারাবাহিকতা দরকার।’ তিনি বলেন, ‘ক্ষমতায় কে আসবে তা নির্ধারণ করবে দেশবাসী।’  

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food