ডেঙ্গু আক্রান্তদের ফ্রি চিকিৎসার দাবি আলালের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০২ আগস্ট ২০১৯, ১৮:৪৭

ডেঙ্গু আক্রান্ত গরিব মানুষদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়ার দাবি জানিয়ে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, দুই মেয়রকে অনতিবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে, স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে বরখাস্ত করতে হবে এবং সাধারণ মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলো যেভাবে এগিয়ে এসেছে তাদের শত্রু মনে করে দমন না করে তাদের কাজ করার সুযোগ দিতে হবে।

শুক্রবার (২ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ডেঙ্গু আক্রান্তদের ফ্রি টেস্ট ও চিকিৎসা এবং বন্যাদূর্গত এলাকার সকল ঋণ মওকুফ ও সুদবিহীন নতুন ঋণ প্রদানের দাবিতে বাংলাদেশ মানবাধিকার পরিষদের মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।

এ সময় আমাদের রাজনীতির মূল বিষয় হচ্ছে মানুষের পাশে থাকা, অসহায় মানুষের পাশে থাকা এবং নির্যাতিত মানুষকে সহায়তা করা জানিয়ে আলাল বলেন, আপনারা দেখেছেন অর্থমন্ত্রী শুরুতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে জাতীয় বাজেট পেশ করতে পারেননি। অর্থমন্ত্রী পরবর্তীতে অনেকবার বলেছেন, আমি অফিসে যাই না ডেঙ্গু মশার ভয়ে। নাসিম সাহেব বলেছেন দুই মেয়র ব্যর্থ। মোহাম্মদ নাসিম গত কালকেও আবার বলেছেন, আওয়ামী লীগের নেতারা ফিল্মি স্টাইলে রাজধানীর প্রধান সড়কে ওষুধ ছড়ালে তাতে কাজ হবে না। ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় যেতে হবে। একইসঙ্গে তাদের ব্যর্থতা এবং এই নকল মশার ওষুধ এক মেয়র স্বীকার করেন আরেক মেয়র স্বীকার করেন না। এই সমন্বয়হীনতার মধ্য দিয়ে দেশে আবার নতুন করে একটি মহামারী আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

সরকারের সমালোচনা মানে সরকারের শত্রুতা নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, সরকারের সমালোচনা মানে সরকারের ভুল ধরিয়ে দেওয়া। সরকারের সমালোচনা করার মানে দায়িত্বশীলরা যেন ভালোভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারে সেই কাজে সহায়তা করা।

বিদেশে অর্থপাচারের প্রসঙ্গ তুলে বিএনপির এই নেতা বলেন, ছয় লক্ষ কোটি টাকা পাচার করেছেন। যে টাকা দিয়ে ১৮টি পদ্মা সেতু নির্মাণ করা যায়। ডেঙ্গু আক্রান্ত গরিব মানুষদের চিকিৎসা কেন বিনামূল্যে করতে দেবেন না? ঋণখেলাপিদের শেয়ার মার্কেট ছেড়ে দিয়েছেন, ঋণখেলাপিদের ব্যাংক ছেড়ে দিয়েছেন, লুটপাটের স্বর্গ রাজ্য করে দিয়েছেন। তাহলে কেন কৃষকের ঋণ মওকুফ করবেন না?

বাংলাদেশ মানবাধিকার পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুল আলমের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের মহাসচিব আ স ম মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন- বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমাতুল্লাহ, অ্যাডভোকেট আবেদ রেজা, তাঁতী দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক ড. কাজী মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ