মহানগর উত্তর বিএনপির সহসভাপতিকে বাসা থেকে তুলে নেয়ার অভিযোগ 

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৫ মার্চ ২০১৯, ১৭:৫০ | আপডেট : ২৫ মার্চ ২০১৯, ১৮:০৭

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি রবিউল আউয়ালকে গতকাল সন্ধ্যায় গুলশান-২ এর নিজ বাসা থেকে সাদা পোশাকধারি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকেরা তুলে নিয়ে গেছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক রুহুল কবির রিজভী। আজ এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি করেন। 

রিজভীর দাবি, এ ঘটনার পর থেকে তার কোন হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। বলেন, এটি ভয়াবহ অমানবিক ও দস্যুবৃত্তিমূলক কাজ। রাষ্ট্রের মদদে এখনও বিরোধী দল নিধনে বেপরোয়া কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে।

বিৃতিতে বলা হয়, মিডনাইট নির্বাচনের পরও সরকার নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে ভয় পাচ্ছে। অজানা আতঙ্কে সবসময় উদ্বিগ্ন থাকছে। তাই গুম, গ্রেপ্তার, মিথ্যা মামলা ও বিচার বহির্ভূত হত্যার মতো নিষ্ঠুর কাজ অব্যাহত রেখেছে। বিরোধী দলশূন্য না করলে নব্য বাকশালী ব্যবস্থা কায়েম করা যাবে না। তাই বিরোধী দল ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে সম্পূর্ণভাবে হরণ করতেই বিএনপিসহ বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের অদৃশ্য করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, বিএনপির ঢাকা মহানগরী নেতা রবিউল আউয়াল মাত্র ১৫ দিন আগে সকল মামলায় জামিনপ্রাপ্ত হয়ে কারাগার থেকে বেরিয়ে এসেছেন। আবার তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া অশুভ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও বিপজ্জনক কোন কিছু ঘটার ইঙ্গিতবাহী। বিরাজমান পরিস্থিতিতে দেশের মানুষ দু:শ্চিন্তাগ্রস্থ, অশান্তি ও গভীর শঙ্কার মধ্যে দিন যাপন করছে। রবিউল আউয়াল নিখোঁজ থাকার ঘটনায় তার পরিবার ও বিএনপি নেতাকর্মীরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

অবিলম্বে তাকে প্রকাশ্যে হাজির করার আহবান জানান তিনি। বলেন, কারণ তাকে সরকারের এজেন্সিগুলোই তুলে নিয়ে গেছে। সুতরাং তাদেরকেই রবিউল আউয়ালকে ফেরত দিতে হবে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ