কো-চেয়ারম্যানের পদ থেকে জিএম কাদেরকে সরিয়ে দিলেন এরশাদ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৩ মার্চ ২০১৯, ০৮:৩২

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যানের পদ থেকে নিজের ভাই জি এম কাদেরকে সরিয়ে দিলেন দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

শুক্রবার রাতে জাতীয় পার্টির দপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এরশাদ বলেছেন, "ইতিপূর্বে আমি জিএম কাদেরকে পার্টির ভবিষ্যৎ উত্তরাধিকারী ঘোষণা করেছিলাম এবং আমার অবর্তমানে পার্টির সব সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা দিয়েছিলাম। কিন্তু জিএম কাদের তার দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছেন। তিনি শুধু দায়িত্ব পালনে ব্যর্থই হননি, দলের মাঝে বিভেদ সৃষ্টি করেছেন এবং তিনি দায়িত্বে আসার পর থেকে পার্টি আরও ঝিমিয়ে পড়ছে।"

আদেশে আরও বলা হয়েছে, "পার্টির অধিকাংশ সিনিয়র নেতারাও জিএম কাদেরের নেতৃত্বকে মেনে নিতে অপারগতা প্রকাশ করেছে। তাই আমি পূর্বের আদেশ পরিবর্তন করে জিএম কাদেরকে পার্টির কো-চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দিচ্ছি। জিএম কাদের পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে থাকবেন। সংসদের বিরোধী দলের উপনেতা থাকবেন কি-না তা দলের পার্লামেন্টারি পার্টি সিদ্ধান্ত নেবে।"

গত ২০ জানুয়ারি চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর যান এরশাদ। সে সময় তিনি জানিয়ে গিয়েছিলেন, তার অনুপস্থিতিতে ভাই জি এম কাদের দলটির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন। গত ৪ ফেব্রুয়ারি এরশাদ দেশে ফিরলেও কোনো প্রকাশ্য সভায় আসেননি। বুধবার তার ৮৯তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গান গেয়ে শোনান রওশন এরশাদ। ওই অনুষ্ঠানে এরশাদের পাশে জি এম কাদেরকেও দেখা যায়। এরপর শুক্রবার রাতে জি এম কাদেরকে নিয়ে এরশাদের এই সিদ্ধান্ত এল।

জাতীয় পার্টির জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদের সঙ্গে জি এম কাদেরের দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। গত ১ জানুয়ারি এরশাদ এক বিবৃতিতে দলে তার উত্তরসূরি হিসেবে জি এম কাদেরকে মনোনীত করার কথা জানান। এরপর এরশাদের অনুপস্থিতিতে জি এম কাদেরের দায়িত্বভার গ্রহণের পর ‘রওশনপন্থি’ বলে পরিচিত নেতারা নাখোশ মনোভাবও দেখিয়েছেন বিভিন্ন সভায়। বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে জি এম কাদেরও সেই শীতল সম্পর্কেরই আভাস দিয়েছিলেন।

এর আগে ২০১৬ সালেও জি এম কাদেরকে কো চেয়ারম্যান করলে দলের একটি অংশ ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। পরে জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যানে পদ সৃষ্টি করে তাতে স্ত্রী রওশন এরশাদকে আসীন করেছিলেন এরশাদ।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ