নিশ্চিত পরাজয় জেনেই তাদের এই নাটকীয়তা: ছাত্রলীগ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ মার্চ ২০১৯, ১৭:৩৮

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে নিশ্চিত পরাজয় জেনে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করে তুলতে বিরোধী প্যানেলগুলো বিভিন্ন রকমের নাটকীয়তার আশ্রয় নিয়েছে বলে দাবি করেছেন ছাত্রলীগ সভাপতি ও ডাকসুর সহ-সভাপতি (ভিপি) প্রার্থী রেজওয়ানুল হক শোভন।

সোমবার দুপুরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “যখন ৮টা থেকে ১টা পর্যন্ত ভোটের পরিস্থিতিতে ছাত্রলীগ নিরঙ্কুশ জয় লাভ করার দিকে যাচ্ছে দেখল, তখন তারা তাদের নিশ্চিত পরাজয় দেখে বিভিন্ন রকম পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে, নাটকীয়তার আশ্রয় নিয়েছে।”

এদিকে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর জিএস প্রার্থী গোলাম রাব্বানী ভোট চুরির অভিযোগ তুলেছেন ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, বামজোট ও ছাত্রদলের প্রার্থীদের বিরুদ্ধে।

কিছু ব্যালট পেপার হাতে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “ওরা এসব ব্যালট পেপার বের করে ছড়িয়ে দিয়ে বলছে, ভোট সুষ্ঠু হয়নি। ওরা দরজা ভেঙে এসব ব্যালট চুরি করেছে। এসব ব্যালট পেপার হল সংসদে ছিল, তারা দরজা ভেঙে এগুলো বের করে ছড়িয়ে দিয়েছে।”

তিনি বলেন, “এ দরজার ভাঙার ঘটনা পরিকল্পিত ছিল। এর পেছনে উস্কানি দিয়েছে ছাত্র অধিকার পরিষদের নুরুল হক নুর, ছাত্রদলের অনিক, বামজোটের লিটন নন্দী। আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে বলব, এ ধরনের দৃষ্টান্তের জন্য নুর, লিটন নন্দী ও অনিকের প্রার্থিতা বাতিল করা হোক।”

এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের ভোটাধিকার হরণের অভিযোগ তোলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার ইচ্ছার কথাও জানান।

গোলাম রাব্বানী বলেন, “ভোট চুরির মধ্য দিয়ে আমাদের ভাই বোনদের ভোটাধিকার হরণ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা উচিত। হয়তো আমাদের বোনদের মধ্যে কেউ তাদের বিরুদ্ধে এ মামলা করবে।”

প্রসঙ্গত, ভোটের আগেই ব্যালটে সিলমারা এবং ভোটদানে বাধা দেওয়াসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ডাকসু নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেয় ছাত্রলীগ ছাড়া অন্য সবক’টি প্যানেল। নতুন নির্বাচনের দাবিতে মঙ্গলবার সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ধর্মঘটেরও ডাক দেওয়া হয়েছে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ