খালেদা জিয়ার সুবিধার্থে কারাগারে আদালত : হাছান মাহমুদ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৪৫

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুবিধার্থে কারাগারে বিশেষ আদালত বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাংসদ ড. হাছান মাহমুদ।

হাছান মাহমুদ বলেছেন, খালেদা জিয়া অসুস্থতার কারণে কারাগারের বাইরে আদালতে যেতে পারছেন না। বারবার মামলার তারিখ থাকলেও গত ছয় মাসে একদিনও আদালতে যেতে পারেননি। তাই খালেদা জিয়া যেখানে আছেন তাঁর কাছাকাছি স্থানে আদালতটি বসানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে কক্সবাজারের হিলডাউন সার্কিট হাউস হলরুমে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি আদালতের কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করতে চায়। কারাগারে আদালতের মাধ্যমে বিচার নিয়ে বিএনপি পরিবেশ ঘোলাটে করতে অপপ্রচার করছে। তারা জানে না এই বিষয়ে সংবিধানে কী আছে। তাদের সংবিধান নিয়ে অধ্যয়ন করা দরকার। তা ছাড়া বিএনপিকে আয়নার সামনে দাঁড়াতে হবে নিজেদের সম্পর্কে জানতে। বাংলাদেশে কারাগারে আদালত করে বিচার কার্যক্রম সূচনা করেছিলেন জিয়াউর রহমান। কারাগারে আদালত বসিয়ে সামারি ট্রায়ালের মাধ্যমে কর্নেল তাহেরকে ফাঁসি দিয়েছেন। খালেদা জিয়া যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন এরশাদের জন্য কারাগারে আদালত বসানো হয়েছিল।

আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগ চায় সব দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন। সে নির্বাচনের মাধ্যমে বিএনপি তাদের জনপ্রিয়তা যাচাই করুক। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে বিএনপি যে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছিল। আশা করি আগের মতো সেই আত্মহননের পথ বেছে নেবে না। বিএনপিকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তাদের কাছে কোনটি বড়? খালেদা জিয়া মুখ্য না তাদের দল মুখ্য? সে সিদ্ধান্ত তাদের নিতে হবে। কেউ যদি নির্বাচনে না আসে সেটা তাদের ব্যাপার। জোর করে কাউকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করানোর দায়িত্ব আওয়ামী লীগের নেই।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সংসদে যারা রয়েছেন তাদের নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন হবে। এর বাইরে কাউকে এই সরকারে সম্পৃক্ত করার সুযোগ নেই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান।

এবিএন/মমিন/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ