নারায়ণগঞ্জে দগ্ধদের মধ্যে একজনের মৃত্যু

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৫৭ | আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:০৯

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় গ্যাসের আগুনে দগ্ধ এক পরিবারের ৮ জনের মধ্যে নূরজাহান বেগম (৭৫) এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

নূরজাহান বেগমকে পরিবারের অন্যদের সঙ্গে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছিল। আজ সোমবার বেলা ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে মেডিকেল ফাঁড়ি পুলিশের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, নূরজাহান বেগমের শরীরের শতভাগ পুড়ে গিয়েছিল। বাকিদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর। তাদের শরীরের ৬০ শতাংশের বেশি পুড়ে গেছে।

বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন বাকি সাতজন হলেন- নূরজাহানের ছেলে কীরণ মিয়া (৫০), কীরণের ছেলে আবুল হোসেন  ইমন (২২) ও  আপন (১০), কীরণের ছোট ভাই হীরণ মিয়া (২৮) ও তার স্ত্রী মুক্তা (২১) তাদের মেয়ে ইলমা (৩), ভাগ্নে কাওছার (১৬)।

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা রাসেল শিকদার জানান, সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ওই বাসার কেউ রান্নাঘরে গ্যাসের চুলা জ্বালাতে গেলে পুরো বাসায় আগুন ধরে যায়। তাতে বাসায় থাকা আটজন দগ্ধ হন। আশপাশের লোকজন ছুটে এসে প্রথমে ছয়জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা আরও দুজনকে বের করে আনেন। তাদের সবাইকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। আগুনে ওই বাসার প্রায় সব আসবাবপত্র পুড়ে যায়। পরিবারের সদস্যদের মধ্যে কেবল কীরণের স্ত্রী লিপি অক্ষত রয়েছেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন বলেন, সম্ভবত ওই ফ্ল্যাটের চুলার চাবি রাত থেকেই খোলা ছিল। তাতেই সারারাতে পুরো ঘরে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। সকালে রান্না করার জন্য চুলা জ্বালতে গেলে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ