আর বেশি দিন রোহিঙ্গারা আরামে থাকতে পারবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ আগস্ট ২০১৯, ২১:৪৩

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রোহিঙ্গাদের জন্য বাংলাদেশ সরকার প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা খরচ করেছে। আর বেশি দিন রোহিঙ্গারা আরামে থাকতে পারবে না। মানবিক এই সংকট মোকাবিলায় দতারাও আর অর্থ দিতে চাইবে না। তখনই সমস্যা তৈরি হবে।

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের কেউ আজ মিয়ানমারে ফিরে যেতে রাজি না হওয়ার প্রেক্ষিতে এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। আস্থার সংকটের ব্যাপারে তিনি বলেন, এই সংকট মিয়ানমারের তৈরি করা এবং এর সমাধান খুঁজে বের করার দায়িত্বও তাদের।

তিনি বলেন, আস্থা সংকটের কারণে রোহিঙ্গারা তাদের নিজেদের দেশে ফিরতে চাইছে না। এই আস্থার সংকট কাটিয়ে উঠতে রোহিঙ্গা নেতাদের রাখাইন থেকে ঘুরিয়ে আনা উচিত যেন তারা নিজেরা দেখতে পারে সেখানে তাদের জন্য কী ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

নির্বিচার হত্যাযজ্ঞের মুখে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরু করতে সব ব্যবস্থা  নিয়ে রাখা হয়েছিল আজ। ক্যাম্প থেকে সীমান্তে যাওয়ার জন্য বাস তৈরি রাখা হয়। কিন্তু বিকেল পর্যন্ত অপেক্ষার পরও স্বেচ্ছায় ফিরে যাওয়ার মতো কোনো রোহিঙ্গার দেখা না পাওয়ার পর তার কার্যালয়ে এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

মিয়ানমারে ফেরার পর নিজেদের নিরাপত্তার ব্যাপারে তাদের হয়ত আশঙ্কা রয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ক্যাম্পে চীন ও মিয়ানমারের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। আমরা পুরোপুরি তৈরি আছি। আমাদের তরফে কোনো গাফিলতি নেই।

ফিরে যাওয়ার জন্য রোহিঙ্গাদের পক্ষ থেকে দাবি পূরণের ব্যাপারে জানতে চাইলে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “তারা বিভিন্ন দাবি করছে। তাদের দাবির কাছে আমরা জিম্মি হতে পারি না।”

শরণার্থী শিবিরের রোহিঙ্গাদের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া সম্বলিত ইংরেজিতে লেখা প্ল্যাকার্ড ও লিফলেট প্রসঙ্গে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, “কারা এটা করে দিচ্ছে, তাদের আমরা চিহ্নিত করছি। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ