বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই জেলায় পাঁচ জনের মৃত্যু

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ জুলাই ২০১৯, ০৮:৫৭ | আপডেট : ২১ জুলাই ২০১৯, ০৯:২৩

ছবি: প্রতিকী
বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নেত্রকোণা ও পঞ্চগড় সদর উপজেলায় পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২০ জুলাই) পৃথক পৃথক সময়ে এই দুর্ঘটনা দু’টি ঘটে। দিনগত রাতে উপজেলার বলনিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নেত্রকোণা :
শনিবার (২০ জুলাই) দিনগত রাতে নেত্রকোণা সদর উপজেলার বলনিয়া এলাকায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দাদি-নাতিসহ দু’জনের মৃত্যু হয়। নিহত দু’জন হলেন- শরীফা আক্তার (৪৮) ও তার নাতি আরমান হোসেন (৮)। আরমান নেত্রকোণা সদর উপজেলার বলনিয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী শরীফা ও নাজিম তাদের নাতি। 

নেত্রকোণা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. বিল্লাল হোসেন জানান, বন্যপ্রাণীর হাত থেকে বাড়ির হাঁস-মুরগি রক্ষা করতে খোয়ারে চারপাশে বৈদ্যুতিক সংযোগ দিয়ে পরিবারটি ফাঁদ তৈরি করেন। রাতে খোয়ারে হাঁস-মুরগি ঠিক আছে কি না দেখতে গেলে অসাবধানতাবসত দাদি-নাতি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে তাদের উদ্ধার করে নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন।

পঞ্চগড় :
অন্যদিকে, শনিবার সন্ধ্যায় পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের মাহানপাড়া এলাকায় বিদ্যুৎস্পর্শে একই পরিবারের তিনজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- মৃত আইজুদ্দীনের ছেলে শহিদুল হক (৪০) এবং তার দুই ছেলে নাজিরুল ইসলাম ও আশাদুর রহমান।

স্থানীয়রা জানান, শহিদুল হক উপজেলার মাহানপাড়ার খালের পানিতে মাছ ধরতে যান। ওই খালে একটি বাড়ির জন্য টানা বৈদ্যুতিক তার ছিঁড়ে পড়েছিল। সেখানে বিদ্যুৎস্পর্শ হন বাবা শহিদুল হক।

এসময় বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেন তার দুই ছেলে। বাবাকে ধরতে পানিতে নামলে তারাও বিদ্যুৎস্পর্শ হন।

পরে স্থানীয়রা দেখে তাদের উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

পঞ্চগড় সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মঈন খন্দকার জানান, ওই তিনজনের হাসপাতালে আনার আগেই মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ