‘মাদক-সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সবাইকে সবসময় সজাগ থাকতে হবে’

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৪৬

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতীয় সংকটকালে ও জরুরি মুহূর্তে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা দক্ষতা এবং সফলতার পরিচয় দিয়ে আসছে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধেও এ বাহিনী আন্তরিকভাবে কাজ করেছে। মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সবাইকে সবসময় সজাগ থাকতে হবে।

আজ মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) গাজীপুরের আনসার একাডেমিতে ৩৯তম জাতীয় সমাবেশে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

বাঙালি জাতিকে বিশ্বের বুকে উন্নত জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা ও বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  বলেন, বাংলাদেশ ও তথা বাঙালি জাতিকে বিশ্বের বুকে উন্নত এবং সমৃদ্ধ জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। 

স্বাধীনতাযুদ্ধে আনসার বাহিনীর ত্যাগের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে আনসার বাহিনীর ৬৭০ জন সদস্য শহীদ হয়েছেন। তাদের সেই দেখানো পথে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদসহ যে কোনো বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি মোকাবিলায় আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গ্রাম বাংলার প্রতিটি মানুষ যাতে আর্থিকভাবে সচ্ছল হতে পারে সে জন্য আমরা বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছি। এর মধ্যে ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্প অন্যতম। আমি এই নাম পরিবর্তন করে রেখেছি ‘আমার বাড়ি আমার খামার’। যাতে প্রত্যেকে তাদের নিজের জমি ব্যবহার করে নিজেরাই স্ববলম্বী হতে পারে। আর এ ক্ষেত্রে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী বিশেষ ভূমিকা রাখবে এটাই আমি আশা করি।

তিনি একাদশ সংসদ নির্বাচনে দায়িত্ব পালনের সময় ৫ আনসার সদস্য নিহত হওয়ার ঘটনায় শোক প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে ওই ৫ আনসার সদস্যকে সাহসিকতার জন্য মরণোত্তর পদক প্রদান করা হয়।

দেশ রক্ষায় আনসার সদস্যদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী তাদের ঝুঁকিভাতা প্রদানসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির কথাও জানান।

প্রধানমন্ত্রী সমাবেশে আনসার সদস্যদের মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ প্রদর্শনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। এ ছাড়া তিনি বেশ কিছু ভৌত কাঠামোর উদ্বোধন করেন।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food