সুস্বাগত ২০১৯!

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:২৫ | আপডেট : ০১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:৩৭

‘সময় ও স্রোত কারও জন্য অপেক্ষা করে না’— দেখতে দেখতে তাই কেটে গেল পুরো বছর। অর্জন-বিসর্জন, প্রাপ্তি আর অপ্রাপ্তিকে সঙ্গী করেই আমরা সবাই পা বাড়াবো নতুনের দিকে। এটিই জগতের নিয়ম, জীবনের নিয়ম।

৩১ ডিসেম্বর তারিখটি গত হওয়ার সঙ্গে মহাকালের গর্ভে বিলীন হয়ে গেল ২০১৮ সাল। শুরু হল নতুন বছর। স্বাগত খ্রিস্টীয় নববর্ষ ২০১৯!

সাফল্য-ব্যর্থতার হিসাব পেছনে ফেলে নতুন করে পথ চলা, নতুন স্বপ্ন ও লক্ষ্যের দিকে হেটে যাওয়া শুরু আজ থেকে। এবছর স্বাধীনতার ছেচল্লিশ বছর পূর্ণ করে বাংলাদেশ পথ চলবে সাতচল্লিশতম বর্ষে। নতুন বছর স্বাধীন বাংলাদেশের বুকে সুখ-শান্তি-সমৃদ্ধির স্নিগ্ধ বাতাসে ভরে থাকুক এই কামনা সকলেরই।

বাঙালী জীবনে গ্রেগরিয়ান নববর্ষ পালনের রেওয়াজ ব্রিটিশ শাসনামল থেকে অনুসৃত হয়ে আসছে। সম্প্রতি তা পরিসরে বেড়েছে। ইংরেজী নববর্ষ হিসেবে বাঙালীর কাছে পরিচিত দিবসটি পালনের ধরন পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতোই। সাধারণ মানুষ এদিন একে অপরের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করে। শুভেচ্ছা কার্ড, এসএমএস, ফেসবুক, টুইটার, ই-মেইলে হাজার হাজার শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন বার্তা ছড়িয়ে পড়ে। পুরনো বছর যেমনই কাটুক, নতুন বছর যেন ভাল কাটে সেই কামনা থাকে সবার জন্যে।

নতুন বছরে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয় লাভের মধ্যমে নতুন সরকার গঠন করে বাংলাদেশের হাল ধরছেন নতুন ভাবে। বাংলাদেশ এখন স্বপ্ন দেখছে শান্তি, স্বস্তি, কল্যাণ ও সমৃদ্ধির। স্বপ্ন দেখছে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়, দূর্নীতিমুক্ত, স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে স্বমহিমায় দাঁড়ানোর।

সেই সাথে নতুন বছরে আমাদের প্রত্যাশা অপরাজনীতি, অপশক্তি, জঙ্গীবাদ, ধর্মান্ধতা, সাম্প্রদায়িকতা ও সকল আধার কালো মুছে গিয়ে বাংলাদেশ পরিণত হবে এক সত্যিকার সোনার বাংলায়। যে বাংলাকে ভালোবেসে আমরা নিম্নমধ্য আয়ের দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যাবো।

‘সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই’ এই মূলমন্ত্র মনে রেখে আমরা যেন দেশের সর্বস্ত্ররের মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারি। আমরা যেন এই মন্ত্রে দীক্ষিত হই যে- তোমার মতামতের সাথে হয়ত আমি একমত নাও হতে পারি, কিন্তু তোমার মত প্রকাশের স্বাধীনতার জন্য আমি বক্ষ উজাড় করে পাশে দাঁড়াবো।

সকলের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে, জীবন ও রক্তকে পবিত্রজ্ঞান করে নতুন বছর শুরু হোক বাংলাদেশে। জীবনমানের উন্নয়ন ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতাকে আরও এগিয়ে নিতে আমরা সবাই মিলে কাজ করবো এই হোক আমাদের নববর্ষের প্রত্যয়।

দেশকে শান্তি ও সমৃদ্ধির পথে নিয়ে যেতে আইনের শাসনের ভিত আরও মজবুত হোক। দেশের সব ক্ষেত্রে সম্মিলিত প্রয়াস বিস্তৃত হোক। বাড়ুক গড় আয়ু। শিক্ষা-দীক্ষায় ঘটুক আরও বিস্তার। নিরক্ষরতার অন্ধকার ঘুচে যাক একেবারে। অনেক দামে কেনা স্বাধীনতার মূল্যবোধ সদা অক্ষুণ্ণ থাকুক। জঙ্গীবাদ আর সাম্প্রদায়িক শক্তির বিশান ঘটুক সমূলে।

নববর্ষের এই শুভলগ্নে আমাদের প্রার্থনা- সকল কালো অন্ধকার কেটে রাঙ্গা আলো চরাচর জুড়ে ছড়িয়ে পড়ুক। শান্তি, সমৃদ্ধি আর ভালোবাসার বারতা নিয়ে পৃথিবীতে উদিত হোক এক নতুন সূর্য। তার আলোয় আমাদের প্রিয় বাংলাদেশ এগিয়ে যাক শান্তি, সম্প্রীতি, সৌহার্দ্য, দেশপ্রেম আর অপার মানবিকতার মশাল হাতে। সুস্বাগত ২০১৯!

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food