মিয়ানমারে ফিরতে চেয়ে কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৫৩

কক্সবাজার, ২৫ আগস্ট, এবিনিউজ : মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও বৌদ্ধ মিলিশিয়াদের জাতিগত নিধনের মুখে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে পালিয়ে আসার এক বছর পূর্ণ হয়েছে আজ শনিবার। গত বছরের এই দিনে শুরু হওয়া মিয়ানমার বাহিনীর নিষ্ঠুর নির্যাতন ও হত্যাজ্ঞের মুখে কক্সবাজারে পালিয়ে আসতে শুরু করেন রোহিঙ্গারা।

মিয়ানমার সেনা ও বৌদ্ধ মিলিশিয়াদের হত্যাযজ্ঞ, ধর্ষণ ও নির্যাতনের বিচারের দাবিতে আজ শনিবার কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের প্রতিটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিক্ষোভ হয়েছে।

একই সঙ্গে পূর্ণ নাগরিকত্ব দিয়ে মর্যাদার সঙ্গে তাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের দাবি করেছেন বিক্ষোভরত রোহিঙ্গারা।

কালোদিবসে কুতুপালং ক্যাম্পে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে রোহিঙ্গা নেতারা বলেন, নিজ দেশে চরম নির্যাতনের শিকার হয়ে পালিয়েছি। বাংলাদেশ সরকার আমাদের মমতায় আশ্রয় দিয়েছে। সব রকমের সহযোগিতাও দিচ্ছে। এ ঋণ কখনো শোধ হবার নয়। কিন্তু আশ্রিত হয়ে আমরা কতদিন অন্যের ঘাড়ে পড়ে থাকব। সবকিছু পেলেও এখানে অনেক প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। কিছু দিন পর আমরা এদেশের বোঝাতে পরিণত হব। তাই স্বদেশে ফিরে যেতে চাই। আন্তর্জাতিক মহলকে অনুরোধ জানাচ্ছি, মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগ করুন। যাতে তারা আমাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসন করায়। কারণ আমাদের নিতে মিয়ানমার সামরিক জান্তা টালবাহানা শুরু করেছে।

এ ছাড়া সে দিনের ঘটনার মিয়ানমারের সামরিক জান্তা সরকারের আন্তর্জাতিক আদালতের বিচারের মুখোমুখি করার আহ্বান জানান রোহিঙ্গা নেতারা।

প্রতিবাদ ও বিক্ষোভের পাশাপাশি মিয়ানমার বাহিনীর হাতে নিহত স্বজনদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মসজিদে মসজিদে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে বাংলাদেশে রোহিঙ্গার ঢল নামেন। রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার কথা বলে সে দেশের সেনাবাহিনী ধরপাকড় চালায়। সেখানে নির্যাতন, বাড়িঘরে আগুন ও গণধর্ষণ চালালে রোহিঙ্গারা পালিয়ে বাংলাদেশে আসতে শুরু করে। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে ঠাঁই নিয়েছে ১০ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ