দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার সম্পাদকের জামিন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:৩২

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে থাকা দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. এমদাদুল হক ও বিচারপতি মো.আকরাম হোসেন চৌধুরীর হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বুধবার রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন ও মোহাম্মদ শিশির মনির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল গিয়াস উদ্দিন আহমেদ।

গত ১১ মে ভার্চুয়াল হাইকোর্ট চালু হলে সেদিনই আবুল আসাদের জামিন চেয়ে আবেদন করেছিলেন আইনজীবীরা। এরপর ১৩ মে বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিমের ভার্চুয়াল বেঞ্চ আবুল আসাদকে জামিন না দিয়ে আবেদনটি হাইকোর্টের নিয়মিত বেঞ্চে উপস্থাপন করতে বলেছিলেন।

আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির বলেন, ‘সেই জামিন আবেদনটি উপস্থাপন করা হলে আদালত সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদের জামিন প্রশ্নে রুল জারির পাশাপাশি  জামিন দিয়েছেন।’

একাত্তরে যুদ্ধাপরাধের দায়ে ২০১৩ সালের ১২ ডিসেম্বর ফাঁসি কার্যকর করা হয় ‘মিরপুরের কসাইখ্যাত কাদের মোল্লার। সেই দিনের স্মরণে জামায়াতে ইসলামীর মুখপত্র হিসেবে পরিচিত দৈনিক সংগ্রামের প্রথম পাতায় একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়, যার শিরোনাম ছিল ‘শহীদ আবদুল কাদের মোল্লার ৬ষ্ঠ শাহাদাতবার্ষিকী আজ’।

এর প্রতিবাদে গত বছর ১৩ ডিসেম্বর দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রতিবাদ সমাবেশ করে সংগ্রাম পত্রিকার কয়েকটি কপি পোড়ান ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী। বিকেলে দৈনিক সংগ্রামের কার্যালয় ঘেরাও ও ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধরা।

ওই ঘটনার পর সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদকে ওই রাতেই হাতিরঝিল থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। ৩৬ নম্বর ওয়ার্ড মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোহাম্মদ আফজাল ওই থানায় মামলা দায়ের করেন।

আবুল আসাদকে গ্রেপ্তার করার পরের দিন ১৫ ডিসেম্বর তাঁকে আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের হেফাজতে নেয় পুলিশ।

সেই রিমান্ড শেষে তাঁকে ১৮ ডিসেম্বর ঢাকার হাকিম আদালতে হাজির করেন তদন্ত কর্মকর্তা হাতিরঝিল থানার পরিদর্শক (অপারেশনস) গোলাম আযম। সে আদালতে আবুল আসাদ জামিন চাইলে বিচারক জামিন আবেদন নাকচ করে আবুল আসাদকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ