সৎ সাহসী সাংবাদিকতায় হুমকি বাড়ছে: বিওজেএ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ মে ২০১৯, ১৭:২৩

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যুগের সাথে তাল মিলিয়ে সাংবাদিকদের দক্ষতা বৃদ্ধি করতে হবে। সেইসাথে দেশে অনলাইন সংবাদমাধ্যমগুলোকে শক্ত প্রাতিষ্ঠানিক ভিত্তির উপর দাড়াতে হবে। এ জন্য অনলাইন ও মাল্টিমিডিয়ায় দক্ষ অনলাইন সাংবাদিক তৈরি করতে হবে। সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে হুমকি দিন দিন বেড়েই চলেছে এজন্য রাষ্ট্রকে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিবেশ তৈরি করতে হবে। আজ শুক্রবার বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ অনলাইন জার্নালিষ্ট অ্যাসোসিয়েশন (বিওজেএ) আয়োজিত সভায় বক্তারা এসব কথা তুলে ধরেন।

এবারের বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের স্লোগান, ‘মিডিয়া ফর ডেমোক্র্যাসি: জার্নালিজম অ্যান্ড ইলেকশন্স ইন টাইমস ডিজইনফরমেশন‘। ১৯৯৩ সালে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় ৩ মে তারিখটিকে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

বিওজেএ নেতারা বলেন, দেশে এখন প্রায় আট কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর। এর বেশিরভাগ অনলাইন সংবাদের পাঠক। ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সরকারের আন্তরিকতায় ২০২১ সালে দেশের সব মানুষ ইন্টারনেটের আওতায় আসবে।
এতে অনলাইন গণমাধ্যমের জন্য সুদিন আসবে। তাই জেলাভিত্তিক অনলাইনপোর্টালগুলোর জন্য সামনে অনেক সুযোগ আসবে। সেইসাথে সাংবাদিকদের চ্যালেঞ্জও বাড়বে। সংগঠনের সকল জেলা ও উপজেলা কমিটি ঢেলে সাজিয়ে নতুন দিনের জন্য প্রস্তত করা হবে। আর জেলাভিত্তিক সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বাংলাদেশ অনলাইন জার্নালিষ্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জাহিদ ইকবালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- সহ সভাপতি রিবেল মনোয়ার, মনজুর হোসনে ইসা, আতিকুল ইসলাম, আরাফাত মাহমুদ, সীমান্ত আরিফ, জিসাদ ইকবাল, সাধারন সম্পাদক ইব্রাহীম সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল আরিফ জুয়েল, মিজানুর রহমার হাসান, রনি ইমরান, মারুফ সরকার প্রমুখ।

এবিএন/মারুফ সরকার/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food